• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে জুরাছড়িতে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    বরকলে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    ৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে রাঙামাটিতে ৫৬ হাজার বৃক্ষরোপণ                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে পানছড়িতে সংবাদ সম্মেলন                    পার্বত্য চুক্তির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে সবাইকে কাজ করতে হবে-বৃষকেতু চাকমা                    পলি ও ড্যাম নির্মাণের কারণে কাপ্তাই হ্রদে রুই জাতীয় মাছের উৎপাদন কমছে                    কাপ্তাইয়ে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সন্মেলন                    লামা ও আলীদমে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান                    পানছড়িতে বিভিন্ন প্রজাতির সাত হাজার বৃক্ষরোপন                    কাপ্তাইয়ে ফলদ বৃক্ষ রোপন পক্ষ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনী জমে উঠেনি!                    লামায় ৩বসত ঘর গুঁড়িয়ে দিয়েছে বন্য হাতির পাল                    কাপ্তাইয়ের অতি বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্হ ৯ পরিবারকে টেউটিন ও নগদ টাকা প্রদান                    নানিয়ারচরের ঘিলাছড়িতে এলজিসহ আটক ২                    স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    আলীকদমে তিন দিনের ফলদ ও বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন                    আলীকদমে হাসপাতালের জমি উদ্ধারে গঠিত তদন্ত কমিটির কাজ শুরু                    খাগড়াছড়িতে তথ্য অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত                    লামায় মুক্তিযুদ্ধে নিহত ৩০ লাখ শহীদের স্মরনে ৩০ লক্ষ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি                    রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে সেবা গ্রহীতাদের সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের যৌথ সভা                    রাঙামাটিতে যুবদলের বিক্ষোভ-সমাবেশ                    কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা ও শিক্ষকদের লাঞ্ছিতের ঘটনায় পিসিপি’র নিন্দা                    
 

রাঙামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম গ্রামীণ সাধারণ বন নেটওয়ার্কের প্রথম সন্মেলন অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 16 May 2017   Tuesday

মঙ্গলবার রাঙামাটিতে প্রথম পার্বত্য চট্টগ্রাম গ্রামীণ সাধারণ বন(ভিসিএফ) সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সন্মেলনে গ্রামীণ সাধারণ বন ২০১৭ এর ঘোষনা এবং ভিসিএফ নেটওয়ার্ক কমিটি গঠন করা হয়। এ ভিসিএফের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবস্থাপনা, বন ও জীব বৈচিত্র্য রক্ষা করা।


রাঙামাটি সাংস্কৃতিক ইনষ্টিটিউট মিলনায়তনে ইউএনডিপি-সিএইচটিডিএফ এবং ইউএসএইড অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় উন্নয়ন সংস্থা জাবারাং কল্যাণ সমিতি, টংগ্যা ও হিউম্যানেটারিয়ান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দিন ব্যাপী এ সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সন্মেলনের প্রথম পর্বে উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা। হেডম্যান মংক্যনু মারমার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ান পাংখোয়া, জাতীয় মানবধিকার কমিশনের সদস্য নিরুপা দেওয়ান,ইউএনডিপি-সিএইচটিডিএফের কর্মকর্তা বিপ্লব চাকমা। স্বাগত বক্তব্যে রাখেন স্থানীয় উন্নয়ন সংস্থা টংগ্যার নির্বাহী পরিচালক বিপ্লব চাকমা। পরে অতিথিরা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট প্রাঙ্গণে বিভিন্ন ফলদ ও বনজ চারা রোপন করেন।


সন্মেলনে দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন চাকমা সার্কেল চীফ দেবাশীষ রায়। পার্বত্য ভিসিএফ নেটওয়ার্কের সভাপতি থোয়াই অং মারমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বন সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি গৌতম দেওয়ান, সাধারণ সম্পাদক সুদত্ত বিকাশ তঞ্চঙ্গ্যা, বিশিষ্ট আইনজীবী সুস্মিতা চাকমা, ইউএনডিপির সিএইচটিডিএফ কর্মকর্তা বিপ্লব চাকমা ও জুমলিয়ান পাংখোয়া। ঘোষণাপত্র উপস্থাপন করেন, ভিসিএফ নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক স্বদেশপ্রীতি চাকমা।


সন্মেলনে তিন পার্বত্য জেলা থেকে গ্রামীণ সাধারণ বন কমিটির প্রায় দুই শতাধিক লোকজন অংশ গ্রহন করেন। সভাপতি থোয়াই অং মারমা ও সাধারণ সম্পাদক স্বদেশপ্রীতি চাকমা নির্বাচিত হয়েছেন।


সন্মেলনে সভাপতি হিসেবে থোয়াই অং মারমা ও স্বদেশপ্রীতি চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক করে ভিসিএফ নেটওয়ার্ক-এর ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। নব নির্বাচিত ভিসিএফ নেটওয়ার্কে সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান চাকমা রাজা দেবাশীষ রায়।


সন্মেলনে বক্তারা আশা প্রকাশ করে বলেন, এ সন্মেলনের মধ্য দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের স্থানীয় জনগনের গ্রামীণ সামাজিক বনায়ন সৃষ্টি, জীব বৈচিত্র্য ও পরিবেশ রক্ষায় বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। পাশাপাশি পার্বত্যাঞ্চলে ভিসিএফ নেটওয়ার্ক পরিবেশ ও প্রতিবেশ সম্পর্কিত স্থানীয় জনগোষ্ঠীর কৃষ্টি-সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য সংরক্ষনের সহায়তা প্রদান করবে।


রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, পাহাড়ে বনের অস্তিত্ব ধরে রাখতে পার্বত্য চট্টগ্রামের গ্রামীণ সাধারণ বনগুলো সংরক্ষণ করতে হবে। কালের পরিবর্তন ও জনসচেনতার অভাবে বনাঞ্চলে বিরাট প্রভাব পড়ছে। বর্তমানে পার্বত্যাঞ্চলের বনাঞ্চলে শত বছরের বৃক্ষ আর দেখা যায়না। এতে যেমন একদিকে পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে, অন্যদিকে প্রাকৃতিক ভারসাম্য নষ্ট হয়ে পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় ঘটছে। তাই পাহাড়ের বনের পরিমান বাড়াতে হলে মানুষের মধ্যে পরিবর্তন আনতে হবে।

 

 

তিনি প্রত্যন্ত অঞ্চলে গ্রামীণ বনায়নের প্রতিও নজর দিতে হবে। তাই পাহাড়ি গ্রামের হেডম্যান-কার্বারীদেরও এ জনসচেতনতায় সম্পৃক্ত করার আহবান জানান।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

 

আর্কাইভ