• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রাঙামাটি জেলা থেকে একমাত্র জিপিএ-৫ পেয়েছে জান্নাতুল                    রাঙামাটিতে কমিউকেশন ষ্ট্রাটেজি বাস্তবায়ন ও মনিটরিং বিষয়ক কর্মশালা                    রাঙামাটিতে ২দিন ব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু                    জেএসএস ও গণতান্ত্রিক থেকে ৪ কর্মী ইউপিডিএফে যোগদান                    খাগড়াছড়িতে সরকারের সকল খাতে বিপুল উন্নয়ন হয়েছে-জুয়েল চাকমা                    নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রীতিময়কে অপহরণের অভিযোগ                    খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে খাগড়াছড়িতে বিএনপি`র সমাবেশ                    রাঙামাটিতে সপ্তাহব্যাপী দেশ বরেণ্য চিত্র শিল্পীদের নিয়ে আর্ট ক্যাম্প সমাপ্ত                    এইচএসসিতে রাঙামাটিতে ফলাফল বিপর্যয়,পাশের হার ৪৯.১১ শতাংশ                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে রাঙামাটিতে র‌্যালী, মাছের পোনা অবমুক্তকরণ                    খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্বে তরুন নেতা জুয়েল চাকমা                    সাপছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে দুর্নীতিবিরোধী কুইজ প্রতিযোগিতা                    রাঙামাটিতে সমাজকল্যাণ পরিষদের অনুদানের চেক বিতরণ                    খাগড়াছড়ি জেলায় পাশের হার ৩৬.৬১ শতাংশ                    বান্দরবানের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবারো নৌকা মার্কায় ভোট দিন-পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী                    কর্ণফুলী নদীতে সেতু নির্মাণে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে সেতু বিভাগের তিন প্রকৌশলীর এলাকা পরিদর্শন                    মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লক্ষ শহীদ স্মরণে আলীকদমে চারা বিতরণ ও বৃক্ষরোপন                    ৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে জুরাছড়িতে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    বরকলে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    ৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে রাঙামাটিতে ৫৬ হাজার বৃক্ষরোপণ                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে পানছড়িতে সংবাদ সম্মেলন                    
 

রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের ঘটনায় আশ্রিতরা অন্যরকম ঈদ পালন করলেন

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 26 Jun 2017   Monday

পাহাড় ধসের ঘটনায় রাঙামাটি শহরের বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে থাকা আশ্রিত লোকজনদের সাথে  সোমবার ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেছেন প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা। আশ্রিতরা যেন এক অন্যরকম ঈদ উদযাপন করলেন।

 

দুপুরের দিকে রাঙামাটি সরকারী কলেজের আশ্রয় কেন্দ্রে থাকা আশ্রিতদের সাথে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান, পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান, রাঙামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা রাঙামাটি সরকারী কলেজ থাকা আশ্রিত লোকজনদের সাথে খাওয়া-দাওয়া পর্বে অংশ গ্রহন করেন। এতে খাবার হিসেবে মাংস,পোলাও, ফলমূল নানান খাবার পরিবেশন করা হয় অাশ্রিকদের মাঝে।  এ ছাড়া তারা আশ্রিতদের সাথে ঈদের আনন্দও ভাগাভাগি করেন।

 

এর আগে  গেল রোববার আশ্রয় শিবিরে থাকা আশ্রিতদের ঈদের নতুন জামাকাপড় বিতরণ করা হয়।  তাছাড়া অন্যান্য আশ্রয় কেন্দ্রে সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তারা আশ্রিতদের সাথে এক সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করেন।

 

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান বলেন, অন্তত: পক্ষে একটা দিন সকল কষ্ট ভুলে থাকতে পারি সে জন্য এ ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ জন্য উন্নত খাবার ও পোশাক তাদের দেয়া হয়েছে। তাদের সাথে এক সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেছি। তিনি আরো জানান, দুর্গত মানুষদের পূর্নবাসনের জন্য সরকার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের পূর্নবাসন জন্য যা যা করা দরকার তাই করবে সরকার।

 

এদিকে, সোমবার সকালে রাঙামাটির তবলছড়িস্থ কেন্দ্রীয় ঈদগাঁ ময়দানে ঈমামের খুতবার পর জেলা প্রশাসক রাঙামাটিবাসিকে ঝুঁকিপূর্ণস্থানে বসত নির্মাণ না করার অনুরোধ  করেছেন।

 

তিনি বলেন, গেল ১৩ জুন রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের ঘটনায় ১২০ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।  প্রকৃতির প্রতিশোধ বা যে কোন নামেই অভিহিত করি না কেন তার বাস্তবতা  হচ্ছে তার জন্য দায়ি আমরা সবাই। কারণ অপরিকল্পিতভাবে বসতবাড়ী নির্মাণে ও পাহাড় কেটে ঝুঁকিতে বসবাসের প্রবণতার জন্য এই প্রাণহানী ঘটনা ঘটেছে। 

অন্যদিকে,বাংলাদেশ টেলিভিশন উপ কেন্দ্রে আশ্রিত লোকজনদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করেন সেনাবাহিনীর চট্টগ্রাম ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল জাহাঙ্গীর কবির তালুকদার। পরে তিনি রাঙ্গাপানিস্থ ভাবনা কেন্দ্রে আশ্রিত স্থানে যান। এসময় রাঙামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম ফারুখসহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

উল্লেখ্য,গেল ১৩ জুন ভারী বর্ষনে পাহাড় ধসে রাঙামাটি শহরের ভেদভেদীর যুব উন্নয়ন বোর্ড এলাকা,মুসলিম পাড়া.শিমুলতলী এলাকা,সাপছড়ি,মগবান,বালুখালী এলাকায় এবং  জুরাছড়ি,কাপ্তাই,কাউখালী ও বিলাইছড়ি এলাকায় ৫ সেনা সদস্যসহ ১২০ জনের মৃত্যূ হয়। রাঙামাটি শহরের ১৯টি আশ্রয় কেন্দ্রে ৩হাজার ২শ জন নারী-শিশু ও পুরুষ আশ্রয় গ্রহন করেছেন।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ