• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে জুরাছড়িতে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    বরকলে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    ৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে রাঙামাটিতে ৫৬ হাজার বৃক্ষরোপণ                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে পানছড়িতে সংবাদ সম্মেলন                    পার্বত্য চুক্তির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে সবাইকে কাজ করতে হবে-বৃষকেতু চাকমা                    পলি ও ড্যাম নির্মাণের কারণে কাপ্তাই হ্রদে রুই জাতীয় মাছের উৎপাদন কমছে                    কাপ্তাইয়ে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সন্মেলন                    লামা ও আলীদমে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান                    পানছড়িতে বিভিন্ন প্রজাতির সাত হাজার বৃক্ষরোপন                    কাপ্তাইয়ে ফলদ বৃক্ষ রোপন পক্ষ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনী জমে উঠেনি!                    লামায় ৩বসত ঘর গুঁড়িয়ে দিয়েছে বন্য হাতির পাল                    কাপ্তাইয়ের অতি বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্হ ৯ পরিবারকে টেউটিন ও নগদ টাকা প্রদান                    নানিয়ারচরের ঘিলাছড়িতে এলজিসহ আটক ২                    স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    আলীকদমে তিন দিনের ফলদ ও বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন                    আলীকদমে হাসপাতালের জমি উদ্ধারে গঠিত তদন্ত কমিটির কাজ শুরু                    খাগড়াছড়িতে তথ্য অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত                    লামায় মুক্তিযুদ্ধে নিহত ৩০ লাখ শহীদের স্মরনে ৩০ লক্ষ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি                    রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে সেবা গ্রহীতাদের সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের যৌথ সভা                    রাঙামাটিতে যুবদলের বিক্ষোভ-সমাবেশ                    কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা ও শিক্ষকদের লাঞ্ছিতের ঘটনায় পিসিপি’র নিন্দা                    
 

পাহাড় ধসের ঘটনার ১মাস ৩দিন পর
রাঙামাটি-মহালছড়ি-খাগড়াছড়ি রুটে হালকা যানবাহন চলাচল শুরু

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 16 Jul 2017   Sunday

ভয়াবহ পাহাড় ধসের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ রাঙামাটি-মহালছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কে অবশেষে ১মাস ৩দিন পর রোববার বিকাল থেকে হালকা যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে।


রাঙামাটি সড়ক ও জনপথ বিভাগ জানায়, গেল ১৩ জুন প্রবল বর্ষনে পাহাড় ধসের ঘটনার জেলার অভ্যন্তরীণ গুরুত্বপর্ণ সড়ক রাঙামাটি-মহালছড়ি-খাগড়াছড়ি রুটের কমপক্ষে ২০ থেকে ২৫টি স্থানে ভেঙ্গে যায়। এর মধ্যে মানিকছড়ির ৬কিলোমিটার এলাকায় পর সড়কের প্রায় দেড় কিলোমিটার জুড়ে পাহাড়ের মাটি গাছ পড়ে রাস্তা ব্লক ও দুটি স্থানে সড়ক ভেঙ্গে যায়। দীর্ঘ ১মাস ৩ দিন পর রোববার বিকালে রাঙামাটি-মহালছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কের কতুকছড়ি ইউনিয়নের সাপছড়ি হিজিং পাড়া এলাকায় ভেঙ্গে যাওয়া সড়ক মেরামত সম্পন্ন করার পর হালকা যানবাহনের জন্য খুলে দেয়া হয়। সড়ক চলাচলের উদ্ধোধন করেন আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। এসময় রাঙামাটির সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবু মুছা,রাঙামাটি পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী মোহাম্মদ সোলেয়মান,সাধারন সম্পাদক মনসুর আহম্মেদসহ আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।


এসময় সাবেক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেন, অতি বৃষ্টির কারণে পাহাড় ধসের পর আড়াই দিনের মধ্যে বিদ্যূৎ ব্যবস্থা এবং ৮ দিনের মাথায় রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কে যানবাহন চালু করা সম্ভব হয়েছে। প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতায় রাঙামাটি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে উঠতে শুরু করেছে। আজকে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যানবাহন চলাচল শুরু করা হয়েছে।


রাঙামাটি সড়ক ও জনপথের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবু মুছা জানান, সড়ক ও জনপথের লোকজন দীর্ঘ দিন পরিশ্রমের ভেঙ্গে যাওয়া রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কের মেরামত সম্পন্ন করেছে। এখন থেকে হালকা যানবাহন চলাচল করতে পারবে এবং কিছু দিন পর বাসসহ ভারী যানবাহন করতে পারবে।

 

এদিকে, পাহাড় ধসের ১মাস ৩ দিন পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচলে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন স্থানীয় লোকজন এবং ওই রুটে চলাচলকারী যাত্রী-চালকরা। তবে অনেকেই আশংকা প্রকাশ করেছেন হিজিং পাড়া এলাকায় ভেঙ্গে যাওয়া সড়কের অংশে ভারী বৃষ্টিপাত হলে আবারো যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে উঠার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ শুধুমাত্র বুলডোজার দিয়ে মাটি ভরাট করে রাস্তার সংযোগ দেয়া হয়েছে।  


অপরদিকে, রোববার জেলা প্রশাসন সন্মেলন কক্ষে বিশেষ জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহামম্মদ মানজারুল মান্নান। এসময় প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন। সভা সূত্রে জানা গেছে,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) প্রকাশ কান্তি চৌধুরীকে আহ্বায়ত করে ক্ষতিগ্রস্থদের নিরাপদ স্থান কমিটিতে গঠন করা হয়েছে। এ কমিটি ক্ষতিগ্রস্থদের নিরাপদ স্থান নির্ধারণসহ জায়গাজমি যাছাই-বাছাই করবে। অপর কমিটিতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) আবু শাহেদ চৌধুরীকে আহ্বায়ক করে পূর্নবাসন বিষয়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ দুটি দশ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবেন।


উল্লেখ্য,গেল ১৩ জুন ভারী বর্ষনে পাহাড় ধসে রাঙামাটি সদর,জুরাছড়ি,কাপ্তাই,কাউখালী ও বিলাইছড়ি এলাকায় দুই সেনা কর্মকর্তা ও তিন সেনা সদস্যসহ ১২০ জনের মৃত্যূ হয়।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ