• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার কর্মকর্তাদের সাথে পরিষদ চেয়ারম্যানের সৌজন্য সাক্ষাত                    বিলাইছড়িতে বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন ইভেন্ট প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত                    কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনায় আ`লীগ নির্বাচনী দলীয় অফিস উদ্বোধন                    কাপ্তাইয়ে ভোটার ৪৩৮৫৪, কেন্দ্র সংখ্যা ১৮                    আওয়ামীলীগ প্রার্থীর পক্ষে নানাভাবে নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উষাতন তালুকদারের                    সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে প্রতিটি কেন্দ্রে নিজেদের কর্মীবাহিনী দিয়ে পাহারা বসানো হবে-দীপংকর তালুকদার                    রাঙামাটি বিভিন্ন এলাকায় নির্বচনী প্রচারনায় হুমকি দেওয়া হচ্ছে-মনি স্বপন দেওয়ান                    পার্বত্য অঞ্চলের কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পের পরিদর্শন পার্বত্য সচিবের                    দীপংকর তালুকদার লংগদু উপজেলায় গণসংযোগ ও সমাবেশে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন                    রাঙামাটিতে সাংবাদিক মোস্তফা কামাল আর নেই                    পার্বত্য চট্টগ্রাম স্থায়ী সমাধান পেতে সিংহ মার্কায় ভোট চাইলেন উষাতন তালুকদার এমপি                    পার্বত্যচুক্তি বাস্তবায়নের লক্ষে নৌকাকে জয়যুক্ত করার প্রত্যয়                    সিআইপিডি’র উদ্যোগে রাঙামাটিতে প্রবীণদের শীতবস্ত্র বিতরণ                    রাঙামাটি আসবাবপত্র সমিতিতে ১৪ মাসের মাথায় আহবায়ক কমিটি গঠন                    বিলাইছড়িতে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে স্মৃতিচারণ ও আলোচনা সভা                    বুদ্ধিজীবি দিবসে কাপ্তাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন                    রাইখালীতে আওয়ামীলীগের দলীয় নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন                    খাগড়াছড়িতে শিশুতোষ দ্বি-ভাষিক বই বিষয়ক স্থানীয় পর্যায়ে অধিপরামর্শ সভা                    রাঙামাটিতে ব্লাষ্টের উদ্যোগে এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে নেটওয়ার্কিং সভা                    রাঙামাটি আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ঊষাতন তালুকদার কাপ্তাই থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু                    লংগদুতে আওয়ামীলীগ প্রার্থী দীপংকর তালুকদারের প্রচারনা                    
 

বাংলা ভাষায় প্রথম পূর্নাঙ্গ ত্রিপিটক গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব উপলক্ষে সংবাদ সন্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 24 Aug 2017   Thursday

বৌদ্ধদের প্রধান ধর্মীয় গ্রন্থ ত্রিপিটক বাংলা ভাষায় প্রথমবারের মতো পূর্নাঙ্গভাবে গ্রন্থ প্রকাশ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার রাঙামাটিতে এক সংবাদ সন্মেলনে আয়োজন করা হয়।


রাঙামাটি রাজ বনবিহার ধর্মশালায় আয়োজিত সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন বাংলায় সমগ্র ত্রিপিটক প্রকাশনা কমিটির প্রধান সম্পাদক শ্রীমৎ ইন্দ্রগুপ্ত মহাস্থবির। এসময় প্রকাশনা কমিটির সদস্য করুনা বংশ মহাস্থবির, বিধুর মহাস্থবির উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি রাজবন বিহার পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতিগৌতম দেওয়ান,প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা প্রমুখ।


সংবাদ সন্মেলনে বলা হয়, বিভিন্ন দেশের ভাষায় সমগ্র ত্রিপিটক অনুবাদ হলেও বাংলায় অনুবাদ হয়নি। তবে ত্রিপিটক বিক্ষিপ্তভাবে বাংলা অনুবাদ করে হলেও পূর্নাঙ্গভাবে প্রকাশিত হয়নি। এছাড়া মহাপরিনির্বাণ প্রাপ্ত আর্যপুরুষ শ্রীমৎ সাধনানন্দ মহাস্থবির বনভান্তেরও আশা ও স্বপ্ন ছিল একদিন বাংলা ভাষায় পূর্নাঙ্গ ত্রিপিটক অনুবাদ করা হবে। সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রুপ দিতে পালি ভাষায় ৫৯টি গ্রন্থকে এবারই এই প্রথম বাংলা ভাষায় ২৫ খন্ডে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করে প্রকাশিত হচ্ছে।


সংবাদ সন্মেলনে আরো বলা হয়, শুক্রবার বাংলা ভাষায় ত্রিপিটকের গ্রন্থের আনুষ্ঠানিকভাবে মোড়ক উন্মোচন করবেন রাঙামাটি রাজ বন বিহারের ভিক্ষু সংঘের আবাসিক প্রধান শ্রীমৎ প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবির ও চাকমা রাণী ইয়ান ইয়ান।


সংবাদ সন্মেলনে বলা হয়, ত্রিপিটক কেবল বৌদ্ধদের কাছে নিখাট ধর্মীয় গ্রন্থ নয়, এটি জ্ঞানগর্ভ ও সার্বজনীন বিষয়বস্তুর কারণে সর্বদেশ ও সর্বজনের অনুসন্ধিৎসু মনকে আলোকি,পুলকিত এবং বিমুগ্ধ করে। তাইতো ত্রিপিটক বিশ্বের বিভিন্ন ভাষায় অনুদিত হয়েছে। ১৮ শতকের মাঝামাঝি সময় থেকে অক্সফোর্ড ভিত্তিক সংস্থা লল্ডন পালি টেক্স সোসাইটি কর্তৃক ত্রিপিটকের ইংরেজি ও পালি সংস্করণ প্রকাশিত থাকে,যা এখনো অব্যাহত রয়েছে। পরবর্তীতে এই সংস্করণকে ভিত্তি করে জার্মান,ফ্রান্স,রুশ ইত্যাদি ভাষায় ত্রিপিটক গ্রন্থগুলো অনুদিত হয়।


সংবাদ সন্মেলনে ত্রিপিটক বাংলা অনুবাদের ইতিহাসের কথা উল্লেখ করে আরো বলা হয়, বাংলায় ত্রিপিটক অনুবাদের ইতিহাস প্রায় দেড়শ বছরের। ১৮৮৭ সালে প্রথম পালি থেকে বাংলায় অনুবাদ হয় সুত্তনিপাত গ্রন্থটি। এটি অনুবাদ করেন ধর্মরাজ বড়–য়া। এরপর ১৯১৬ সালে ঈশান চন্দ্র ঘোষ জাতক ৬ খন্ড বাংলায় অনুবাদ করেন। ১৯২৮ সালে প্রজ্ঞালোক মহাস্থবির সমগ্র ত্রিপিটক অনুবাদ করার এক মহৎ গ্রহনের জন্য মায়ানমারে রেঙ্গুনে বৌদ্ধ মিশন প্রেস প্রতিষ্ঠা করেন। তার এ উদ্যোগের প্রেক্ষিতে বাংলায় অনুবাদ ও প্রকাশ করা হয়। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ১৯৪২ সালে শক্তিশালী বোমার আঘাতে বৌদ্ধ মিশন প্রেস সম্পুর্ণরুপে ধ্বংস হয়। সেখানেই এ উদ্যোগ পরিসমাপ্তি ঘটে।


সংবাদ সন্মেলনে ত্রিপিটক প্রকাশের সন্মিলিত প্রচেষ্টা সময়োপযোগী ও সুপরিকল্পিত পদক্ষেপ গ্রহনের মাধ্যমে এই প্রথম বাংলায় সমগ্র ত্রিপিটক প্রকাশ করে একদিকে পরম পূজ্য বনভান্তের সেই মহান ইচ্ছা পরিকল্পনাকে পূরণ করে দিতে সমর্থ হয়েছে অন্যদিকে এখনো বাংলায় সমগ্র ত্রিপিটক অনুবাদ হয়নি এরকম লজ্জাজনক উক্তি চিরতরে মুছে দিয়ে এক অভাবনীয় গৌরবোজ্জল ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। পাশাপাশি বাংল সাহিত্যকেও সমৃদ্ধ করবে।


উল্লেখ্য, আজ থেকে আড়াই হাজার বছর পূর্বে ভগবান গৌতম বুদ্ধ আরহৎ লাভের পর মানবমুক্তির জন্য ধর্ম প্রচার করেছিলেন। সেই সাধনালব্ধ অর্জিত জ্ঞান দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে তিনি জীব জগতে হিত-সুখ কামনায় প্রচার করেছিলেন তারই সমন্বিত রুপ হলো ত্রিপিটক। এ ত্রিপিটক থাইল্যান্ড, ভারত, বার্মা, চীন, জাপান, কম্বোডিয়া, শ্রীলঙ্কা, ভিয়েতনামসহ কয়েকটি দেশের ভাষায় সমগ্র ত্রিপিটক অনুবাদ হলেও বাংলায় অনুবাদ হয়নি নানা দেশে বহু ভাষায় পূর্নাঙ্গভাবে প্রকাশিত হলেও বাংলা ভাষায় আজো ত্রিপিটক প্রকাশিত হয়নি। তবে ত্রিপিটক বিক্ষিপ্তভাবে বাংলা অনুবাদ হয়।
--হিলিিড২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ