• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রামগড়ে বিজিবি’র অভিযানে অবৈধ কাঠ আটক                    খাগড়াছড়িতে ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় এইচডব্লিউ`র নিন্দা ও প্রতিবাদ                    বালুখালীতে হিল ফ্লাওয়ারে উদ্যোগে দুর্যোগ মোবেলায় সচেতনতা সৃষ্টিতে সমন্বয় সভা                    রাঙামাটিতে ঐতিহ্যবাহী আহলপালনি উপলক্ষে জাক’র নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন                    খাগড়াছড়িতে কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় আটক ৫, জড়িতদের গ্রেফতারের দাবীত বিক্ষোভ                    পার্বত্য প্রথাগত আইনগুলো যুগোপযোগী করতে হবে                    খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ পার্কে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ                    রামগড়ে ইয়াবাসহ এক পাচারকাীকে আটক করেছে বিজিবি                    কাপ্তাইয়ের রেশমবাগান-বারঘোনা সড়ক যোগাযোগ বন্ধ, জনদুর্ভোগ চরমে                    লংগদুতে জেলেদের ৪০কেজি করে চাল প্রদানের দাবীতে মানবন্ধন                    আন্তর্জাতিক যোগ ব্যায়াম দিবস উপলক্ষে রাঙামাটিতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা                    মাটিরাঙ্গায় পাহাড়ি ঢলে সেতু ধ্বস,১৫ গ্রামের মানুষের জীবনে অচলাবস্থা                    রামগড়ে তথ্য অফিসের প্রেস ব্রিফিং                    রামগড়ে স্বাস্থ্য বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত                    রামগড়ে অভিযানে ভারতীয় মদ ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি                    মহালছড়িতে ৩ গ্রামবাসীকে অপহরণের নিন্দা ও প্রতিবাদ ইউপিডিএফের                    রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভা                    জুরাছড়িতে জেলা পরিষদের নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ                    রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বাঘাইছড়িতে বন্যা কবলিত স্থান পরিদর্শন                    ঈদের ছুটিতে খাগড়াছড়ির বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে দর্শনার্থীদের ভীড়                    বাঘাইছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে এমএন লারমা গ্রুপের জেএসএস`র এক সদস্য নিহত                    
 

রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে পুর্নবাসনের লক্ষে ত্রাণ বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 05 Sep 2017   Tuesday

রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে পুর্নবাসনের লক্ষে মঙ্গলবার ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে নগদ টাকাসহ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে জেলা প্রশাসন। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগামী ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আশ্রিতদের আশ্রয় কেন্দ্র ছাড়তে বলা হয়েছে।


রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে পুর্নবাসনের লক্ষে জেলা প্রশাসন কার্যালয় চত্বরে অনুষ্ঠিত ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রি বিতরণ করেন সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান। এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার সাঈদ মো. তারিকুল হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবু শাহেদ চৌধুরী, রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কাজী মো. জসিম উদ্দিন বাবুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে রাঙামাটি পৌর সভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত ১৪০ পরিবার এবং ৬টি আশ্রয় কেন্দ্রে থাকা ২৬৩ পরিবারকে পরিবারকে ৬ হাজার টাকা,দুই বান্ডেল ঢেউ টিন ও ৩০ কেজি চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে এক হাজার ও ২০ কেজি চাউল বিতরণ করা হয় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে।


বিতরনকালে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান বলেন, আশ্রয় কেন্দ্র পরিচালানা করা দুরুহ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতোমধ্যে সরকারি বরাদ্দ শেষ হয়েছে। এ অবস্থায় কোনো মতেই আশ্রয় কেন্দ্র চালানো সম্ভব নয়। তাই জমা রাখা ত্রাণ থেকে এসব সহায়তা দিয়ে আশ্রয় কেন্দ্র ছাড়তে বলা হয়েছে। ত্রাণ পাওয়ার পর আশ্রিতরা ঘরমুখী হবেন। ঝুঁকিপূর্ণ বা বিধ্বস্ত ভিটায় ঘর তৈরী না করে নিরাপদ স্থানে ঘরবাড়ি তৈরীর জন্য তিনি অনুরোধ জানান।


এদিকে ত্রাণ বিতরণ শেষে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, গেল ১৩ জুন পাহাড় ধসের ঘটনায় শহরসহ জেলায় সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ১২৩১ এবং আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ৯ হাজার ৫৩৭। জেলায় এসব ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এ পর্যন্ত ৭৭৬ টন চাল, নদদ ১ কোটি ৬৫ লাখ ৮৬ হাজার, ৫০০ বান্ডেল ঢেউ টিন এবং গৃহ নির্মাণ ব্যয় মঞ্জুরি বাবদ ১৫ লাখ টাকাসহ বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রি বিতরণ করা হয়েছে।

 

অপরদিকে, ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, সামান্য এ ত্রাণ নিয়ে কোথায় যাবেন, কী করবেন তা কিছুই বুঝতে পারছেন না তারা। তারা বাড়িভিটা বিধ্বস্ত হয়ে এখন সর্বহারা। এখন সামান্য এই ত্রাণ দিয়ে আগামী ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যেই আশ্রয় কেন্দ্র ছাড়তে বলে দেয়া হচ্ছে। সরকার পুনর্বাসনের আশ্বাস দেয়ায় এত দিন তার অপেক্ষায় আশ্রয় কেন্দ্রে ছিলেন। কিন্তু এখনো তাদের পুনর্বাসনের বিষয়ে সুস্পষ্ট কিছুই বলা হচ্ছে না। প্রশাসন থেকে এখনও সেই একইভাবে উপযুক্ত জায়গা খোঁজা এবং সরকার বরাদ্দ দিলে পরবর্তীতে পুনর্বাসন করার কথা বলা হচ্ছে।


উল্লেখ্য, গেল ১৩ জুন রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের ঘটনায় ৫ সেনা সদস্যসহ ১২০ জনের মৃত্যু হয় জেলা প্রশাসনের হিসাব মতে প্রায় ১৮ হাজার ৫শ ঘর বাড়ী ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর মধ্যে সম্পুর্ন বিধস্ত হয় ১২শ ঘরবাড়ি।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ