• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে জুরাছড়িতে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    বরকলে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন                    ৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরণে রাঙামাটিতে ৫৬ হাজার বৃক্ষরোপণ                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে পানছড়িতে সংবাদ সম্মেলন                    পার্বত্য চুক্তির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে সবাইকে কাজ করতে হবে-বৃষকেতু চাকমা                    পলি ও ড্যাম নির্মাণের কারণে কাপ্তাই হ্রদে রুই জাতীয় মাছের উৎপাদন কমছে                    কাপ্তাইয়ে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সংবাদ সন্মেলন                    লামা ও আলীদমে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান                    পানছড়িতে বিভিন্ন প্রজাতির সাত হাজার বৃক্ষরোপন                    কাপ্তাইয়ে ফলদ বৃক্ষ রোপন পক্ষ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনী জমে উঠেনি!                    লামায় ৩বসত ঘর গুঁড়িয়ে দিয়েছে বন্য হাতির পাল                    কাপ্তাইয়ের অতি বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্হ ৯ পরিবারকে টেউটিন ও নগদ টাকা প্রদান                    নানিয়ারচরের ঘিলাছড়িতে এলজিসহ আটক ২                    স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    আলীকদমে তিন দিনের ফলদ ও বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন                    আলীকদমে হাসপাতালের জমি উদ্ধারে গঠিত তদন্ত কমিটির কাজ শুরু                    খাগড়াছড়িতে তথ্য অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত                    লামায় মুক্তিযুদ্ধে নিহত ৩০ লাখ শহীদের স্মরনে ৩০ লক্ষ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি                    রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে সেবা গ্রহীতাদের সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের যৌথ সভা                    রাঙামাটিতে যুবদলের বিক্ষোভ-সমাবেশ                    কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা ও শিক্ষকদের লাঞ্ছিতের ঘটনায় পিসিপি’র নিন্দা                    
 

ফিরে দেখা ২০১৭
ভয়াবহ পাহাড় ধসে ঘটনায় ১৭ সাল ছিল রাঙামাটির জন্য দুর্বিসহ

বিশেষ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 31 Dec 2017   Sunday

ভয়াবহ পাহাড় ধস আর অতি বর্ষণের কারনে ২০১৭ সাল ছিল পার্বত্য রাঙামাটির বাসিন্দাদের জন্য দুর্বিসহ বছর। বছরের মাঝামাঝি জুন মাসের শুরুতে রাঙামাটিতে সর্বোচ্ছ রেকর্ড মাত্রায় বৃষ্টি আর ভয়াবহ পাহাড় ধস জান মালের ব্যাপক ক্ষতি করে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে  রাঙামাটির পরিস্থিতি দূর্বিসহ বিভিষিকাময় হয়ে উঠে। বিশ্ব জুড়ে আলোচনার কেন্দ্রে ছিল রাঙামাটি।

 

৩০ মে ঘুনিঝড় মোরার তান্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে যায় রাঙামাটি স্বাভাবিক জীবন যাত্রা। প্রাণ হারায় দুইজন। ১৩ জুন ঘটে যায় রাঙামাটির ইতিহাসের স্মরণকালে ভয়াবহ পাহাড় ধ্বসের ঘটনা। ১৩ জুনের ভয়াবহ পাহাড় ধ্বসে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু ও সম্পদের ক্ষতি হয় রাঙামাটিতে। পাহাড় ধ্বসের ঘটনায় ৬ সেনা সদস্যসহ মারা যায় ১২০ জন। আর আহত হয়েছে দেড় হাজারেরও বেশী। ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে প্রায় আড়াই হাজারের মতো। বিভিন্ন স্থানে সড়কের উপর পাহাড় ধনে পড়ে। মানিকছড়ি শালবনে ১০০ মিটার সড়কের অংশ নিশ্চিন্ন হয়ে বিছিন্ন হয়ে যায় রাঙ্গামাটি - চট্টগ্রাম সহ অভ্যন্তরীন সব সড়ক যোগাযোগ।

 

গাছপালা উপড়ে ও বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙ্গে লন্ডভন্ড হয়ে যায় রাঙামাটি -হাটহাজারী বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন। পুরো শহর বিদ্যুৎ বিহীন হয়ে পড়ে, বন্ধ হয়ে যায় পানি সরবরাহ ব্যবস্থা। দেখা দেয় চরম মানবিক সংকট। রাঙামাটি শহরের অভ্যন্তরীন সড়ক ও বিভিন্ন স্থানে মাটি ভাঙ্গন দেখা দেয়ায় সড়কে যান চলাচলে বিঘœ ঘটে। সরকারী ও আবসিক অনেক পাকা ভবন ঝুকিঁপূর্ন হয়ে উঠে।

 

পাহাড় ধ্বসের ৪দিনের মাথায় বিদ্যুৎ সরবরাহ পূনরায় চালু হয় এবং রাঙামাটি চট্টগ্রাম সড়কের ৮ দিন সড়ক যোগাযোগ বিছিন্ন থাকার পর সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে মানিকছড়ি শালবন এলাকায় বিকল্প সড়ক চালু করে যোগাযোগ পূর্ণস্থাপিত হয়। একমাস বিচ্ছিন্ন থাকার পর সরাসরি চালু হয় খাগড়াছড়ি –রাঙামাটি সড়ক। এর পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে আসে রাঙামাটির জীবনযাত্রা।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ