• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
সাজেকে প্রতিপক্ষের ব্রাশ ফায়ারে ইউপিডিএফের ৩ কর্মী নিহত                    মহালছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা                    রাঙামাটিতে জেলা উন্নয়ন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত                    জুরাছড়িতে সেনা বাহিনীর উদ্যোগে শিক্ষা সহায়তা প্রদান                    খাগড়াছড়িতে সেফটিক ট্যাঙ্ক পরিস্কার করতে নেমে দুই শ্রমিকের মৃত্যু                    দীঘিনালার সাংবাদিক পলাশ বড়ুয়া’র পিতৃবিয়োগ                    দুই ত্রিপুরা কিশোরীর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে ঢাকায় মানববন্ধন ও সমাবেশ                    লামায় সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রী ৫ দিন ধরে নিখোঁজ                    কাপ্তাইয়ে বিজিবির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত                    কাপ্তাইয়ে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পক্ষ থেকে ৩৪ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান                    রাঙামাটিতে কৃষকদের সহজলভ্য ঋনের সেবা পেতে ব্যাংক প্রধানদের সাথে পরামর্শক কর্মশালা                    খাগড়াছড়িতে অবিস্ফোরিত আতশবাজিতে শিশু দগ্ধ                    খাগড়াছড়িতে দুগ্রুপের গোলাগুলি বিনিময়, সন্ত্রাসীদের ধরতে যৌথ বাহিনীর অভিযান                    দীঘিনালায় দুর্বৃত্তের গুলিতে ইউপিডিএফ’র সাবেক কর্মী নিহত                    আলীকদমে শিশু ও নারী উন্নয়নে ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা                    লামায় বেইলি ব্রীজের পাটাতন ভেঙ্গে যাওয়ায় দুর্ভোগ চরমে                    মাইসছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা                    রাজস্থলী উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ওয়াই-ফাই সেবা প্রদান                    উপকার ভোগীদের সরকারী ও প্রাইভেট সেক্টরের উন্নয়ন সেবা সহজলভ্য করতে রাঙামাটিতে কর্মশালা                    লংগদুতে মাস ব্যাপি ক্রিকেট প্রশিক্ষনের সনদ পত্র বিতরণ                    সীতাকুন্ডে দুই কিশোরীর হত্যায় জড়িতদের শাস্তির দাবীতে রাঙামাটিতে মানববন্ধন                    
 

সংবাদ সম্মেলনে নতুন কর্মসূচি
খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফের ৮ উপজেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচিসহ ৭ দফা কর্মসূচি ঘোষনা

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 08 Jan 2018   Monday

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের(ইউপিডিএফ) নেতা মিঠুন চাকমার হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে সোমবার খাগড়াড়িতে সংবাদ সন্মেলন করেছে সংগঠনটি। সংবাদ সন্মেলনে অবিলম্বে মিঠুন চাকমার হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে বিরাজমান পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে ৭ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।


সোমবার খাগড়াছড়ি শহরের স্বণির্ভর এলাকার কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইউপিডিএফ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নতুন কুমার চাকমা।


সংবাদ সন্মেলনে এ এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপিডিএফের জেলা সংগঠক মাইকেল চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিনয়ন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরুপা চাকমা প্রমুখ।


ইউপিডিএফ নেতারা প্রশাসনের পক্ষপাতদুষ্ট ভূমিকার কারণে নিজেদের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে শংকা প্রকাশ করে করে বলেন,‘আমাদের মনে প্রশ্ন জাগে, প্রশাসনের নাকের ডগায় নিরাপত্তার বলয়ভুক্ত এলাকায় এই নব্য মুখোশবাহিনী কিভাবে মিঠুনের মত এক পরিচিত রাজনৈতিক কর্মীকে তুলে নিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যার দুঃসাহস দেখাতে পারে। হত্যার ৪ দিন অতিবাহিত হলেও প্রশাসন খুনীদের গ্রেফতার করতে পারেনি, এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতাও লক্ষ্য করা যায়নি। এমনকী মামলা নিতেও পুলিশ গড়িমসি করছে। স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন জাগে, তাহলে কি প্রশাসনই খুনীদের প্রশ্রয়দাতা? প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যাকা- সংঘটিত হওয়া এবং খুনীদের গ্রেফতারের ব্যাপারে নিস্ক্রিয় ভূমিকার কারণে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি জনমনে আস্থাহীনতা, সন্দেহ ও অবিশ্বাস বদ্বমূল হয়েছে।’


সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর আশ্রয় প্রশ্রয় ছাড়া নব্য মুখোশবাহিনী দুর্বৃত্তরা কখনই অপকর্ম চালিয়ে যেতে পারত না। গত ‘১৫ নভেম্বর ২০১৭ খাগড়াছড়ির খাগড়াপুর কমিউনিটি সেন্টারে কঠোর প্রহরায় তথাকথিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীটি আত্মপ্রকাশ করে এবং তার পরে পরেই একের পর এক অপকর্ম সংঘটিত করে চলেছে। গত ৫ ও ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ যথাক্রমে নান্যাচর বেতছড়িতে সাবেক ইউপি সদস্য অনাদি রঞ্জন চাকমা ও বন্দুকভাঙ্গায় ইউপিডিএফ সংগঠক অনিল বিকাশ চাকমাকে গুলি করে হত্যা করে। ৩ জানুয়ারি মিঠুন তাদের হাতে প্রাণ হারিয়েছেন। নব্বইয়ের দশকে বিএনপি সরকারের কর্ণেল অলি আহম্মেদের প্রত্যক্ষ মদদে গঠিত মুখোশবাহিনীর সাথে এ ‘নব্য মুুখোশবাহিনী’র হুবহু মিল রয়েছে।’


সংবাদ সন্মেলনে মিঠুন চাকমার মৃত্যুদেহে সংগঠনের পক্ষ থেকে শেষশ্রদ্ধা জানাতে প্রশাসনের বাধা প্রদানের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তার হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে বিরাজমান পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে ৭ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এতে  মঙ্গলবার খাগড়াছড়ির ৮উপজেলায় বিক্ষোভ, ১১ ও ১৪ জানুয়ারী খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ, স্মরণসভা ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, ১৭ জানুয়ারী রাঙ্গামাটি ও বান্দরবানে সংহতি সমাবেশ, ১৯ জানুয়ারী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সংহতি সমাবেশ এবং ২৮ জানুয়ারী শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের জারিকৃত প্রজ্ঞাপন বাতিলসহ ৮দফা দাবীতে স্মারকলীপি প্রদান কর্মসূচী পালনের ঘোষনা দেয়া হয়।


লিখিত বক্তব্যে নতুন কুমার চাকমা বলেন, তিনি মিঠুন চাকমাকে একজন পরিচিত ও জনপ্রিয় নেতা উল্লেখ করে বলেন, ‘তার হত্যাকা- সংঘটিত হওয়ার পর দেশে বিদেশে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। গত ৫ জানুয়ারি মিঠুন চাকমার দাহক্রিয়া অনুষ্ঠান ও স্বনির্ভরে মিঠুন চাকমার স্মরণে সংহতি সমাবেশ ছিল। পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা থাকার কারণে তার দাহক্রিয়া ও সংহতি সমাবেশে যোগদানের লক্ষ্যে বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার লোকজন আসতে থাকে। কিন্তু পথে পথে বিভিন্ন চেকপোস্টে গাড়ি আটকিয়ে হুমকি দিয়ে লোকজনকে ফেরত পাঠানো হয়। ফলে হাজার হাজার মানুষ দাহক্রিয়া ও সংহতি সমাবেশে যোগদান করতে পারেনি।


সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ইউপিডিএফ সংগঠক মাইকেল চাকমা অভিযোগ করে বলেন, মিঠুন চাকমার হত্যাকারীরা পরিবারকে মামলা করতে বাধা দেয়ায় সংগঠনের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করতে চেয়েছিল। কিন্তু পুলিশ পরিবারের সদস্য ছাড়া অন্য কারো কাছ থেকে মামলা গ্রহণে অস্বীকৃতি জানিয়ে অজ্ঞাত আসামী দেখিয়ে তড়িঘড়ি করে মামলা করেছে। এতে প্রমাণ মিলে মিঠুন চাকমা হত্যাকারীরা কাদের মদদপুষ্ট।


উল্লেখ্য, গেল ৩ জানুয়ারী খাগড়াছড়ি শহরের স্লুইচ গেইট এলাকায় প্রতিপক্ষের গুলিতে খুন হন ইউপিডিএফ সংগঠক মিঠুন চাকমা। হত্যাকা-ের চারদিন পর গত শনিবার রাতে খাগড়াছড়ি সদর থানার এসআই একেএম মিজানুর রহমান বাদি হয়ে ৭ থেকে ৮ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ