• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
বাঘাইছড়ির হত্যাকান্ডটি ছিল পরিকল্পিত প্রাথমিক তদন্তে পেয়েছেন-তদন্ত কমিটির প্রধান                    খাগড়াছড়িতে জেলা ও দায়রা জজ রোখসানা পারভীন’র বিদায় সংবর্ধনা                    বাঘাইছড়ি হত্যাকান্ডের জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী পার্বত্য নাগরিক পরিষদের                    সরকারি বনাঞ্চলে আগুন বনজ সম্পদ ও জীববৈচিত্র্য ধ্বংস!                    বাঘাইছড়ি ও বিলাইছড়িতে সংঘটিত সহিংস ঘটনায় জনসংহতি সমিতি জড়িত নয়                    আমরা কেবল ফুল দিয়ে যাব আর আপনারা গুলি করে মারবেন এটা হয় না-দীপংকর তালুকদারএমপি                    পানছড়িতে বেসরকারীভাবে নবনির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিতা ত্রিপুরার সংবাদ সম্মেলন                    বিলাইছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুরেশ কান্তি তংচংগ্যা নিহত                    বাঘাইছড়িতে হতাহতের ঘটনায় ৭ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠিত                    বরকলে জেএসএস সমর্থিত প্রার্থীরা বেসরকারীভাবে নির্বাচিত                    রাঙামাটিতে ৫ উপজেলায় প্রতিদ্বন্ধি চেয়ারম্যান প্রার্থীর নির্বাচনী ফলাফল                    বাঘাইছড়িতে ভোট শেষে ফেয়ার পথে দুর্বৃত্তদের ব্রাশফায়ারে সহকারী পুলিং অফিসারসহ নিহত ৬ ও আহত ২৬                    সোমবার রাঙামাটির দশ উপজেলায় ভোট গ্রহন, কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম প্রেরণ                    বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে রাঙামাটি জেলা পরিষদের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান                    বাংলাদেশের প্রতিটি অর্জনে বঙ্গবন্ধুর নামটি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে-দীপংকর তালুকদার এমপি                    রাজস্থলীতে পাল্পউড ডিপো উদ্বোধন                    রাঙামাটিতে শুরু হলো শিশু-কিশোর মেলার বর্ণাঢ্য আয়োজন                    সাংসদ বাসন্তি চাকমার অপসারনের দাবীতে মহালছড়িতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ                    রাঙামাটি ফ্রেন্ডস ক্লাব কাম কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন                    উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন লক্ষে বরকলে মতবিনিময় সভা                    পানছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ইউপিডিএফের নেতা নিহত                    
 

ঢাকায় সংবাদ সন্মেলনে মন্টি ও দয়াসোনা চাকমা
জিম্মি অবস্থা থাকাকালীন অকথ্য মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি

ডেস্ক রিপোর্ট : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 29 Apr 2018   Sunday

জিম্মি অবস্থা থাকাকালীন অকথ্য মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি, প্রাণ নিয়ে ফিরতে পারবো কিনা নিশ্চিত ছিলাম না। অপহরণ ছিল পরিকল্পিত, নব্য মুখোশ বাহিনী ও এমএন লারমা দলের একটি গোষ্ঠী মিলিতভাবে এ ধরনের ঘৃণ্য ন্যাক্কারজনক কাজ করেছে।

 

অপহরনের মুক্তির দশ দিন পর রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি ভবনের সাগর-রুনি মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও রাঙামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দয়াসোনা চাকমা এসব কথা বলেন।


হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক নীতি শোভা চাকমার স্বাক্ষরিত বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো প্রেস বার্তায় বলা হয়,১৯ নারী-ছাত্র-যুব সংগঠনের উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলন সভাপতিত্ব করেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভানেত্রী নিরূপা চাকমা। এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সাধারণ সম্পাদক শম্পা বসু, নারী সংহতির সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল মরিয়ম, বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদউস, বিপ্লবী নারী ফোরামের সদস্য আমেনা আক্তার, বিপ্লবী নারী মুক্তির আহ্বায়ক নাসিমা নাজনীন, সিপিবি নারী সেলের সদস্য জলি তালুকদার, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিনয়ন চাকমা, ছাত্র ঐক্য ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক সরকার আল ইমরান, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি এমএম পারভেজ লেলিন, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবীর, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সহ-সভাপতি সাদেকুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সদস্য হযরত আলী, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা প্রমূখ।


১৯ সংগঠনের পক্ষে সংক্ষিপ্ত এক লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিরূপা চাকমা। এরপর মন্টি চাকমা তাদের ৩৩ দিনের জিম্মি থাকার দুঃসহ অভিজ্ঞতা লিখিতভাবে সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেন।


মন্টি চাকমা বন্দি থাকাকালীন সেই দুঃসহ দিগুলোর স্মৃতি বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন, ১৮ মার্চ সকালে নব্য মুখোশবাহিনীরা হঠাৎ ছাত্রদের মেসঘর লক্ষ্য করে ব্রাশ ফায়ার করে। এরপর সবাই দৌড়ে পালাতে থাকে। তখন অন্যদের মতো তিনিও সেখান থেকে পালিয়ে একটা শৌচাগারে আশ্রয় নেন। কিন্তু সন্ত্রাসীরা তাকে দেখে ফেললে বের হয়ে আসতে বলে।তিনি আসতে না চাইলে আমাকে গুলি করে মারার ভয় দেখায়। এসময় সেখানে আরেকজন সন্ত্রাসী গিয়ে তাকে পিছমোড়া করে বেঁধে মারধর করে। পরে ছাত্রদের মেস ঘরে এনে উঠোনের একটা গাছে বেঁধে রাখা হয়। এরপর দয়াসোনা চাকমাকেও সেখানে আনা হয়। পরে দুজনকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায়।


তিনি আরো বলেন, অপহরনের প্রথম দিন নানিয়ারচরে গুল্যাছড়ি নামক গ্রামে এক জৈনক পাহাড়ির বাড়িতে তাদের রাখা হয়। সেখানে দুইদিন ধরে মুখোশবাহিনীর সর্দার তপন জ্যোতি চাকমা বর্মা আমাদের সাথে খুব খারাপ ভাষায় গালিগালাজ করে ও ধর্ষণের হুমকি দেয়। তিনি এসময় তাকে উদ্দেশ্য করে বলতে থাকেন ‘আগে তোমাকে মোবাইল ফোন করে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছি, এবার তা বাস্তবায়ন করব’। পরে ২০ মার্চ একটি ইঞ্জিন বোটে করে নানিয়ারচর উপজেলা থেকে মহালছড়ি উপজেলায় জেএসএস সংস্কারপন্থীদের ঘাঁটি এলাকার মুবাছড়ি নামক এলাকায় ধনপুদি বাজারে সশস্ত্র প্রহরায় নিয়ে যায়। সেখান থেকে প্রায় দুই দিন দুই রাত পায়ে হেঁটে দিঘীনালা ও লংগদু সীমান্তবর্তী এলাকা মেরুং-এ নিয়ে জায়গা বদল করে কয়েকটি বাড়িতে জিম্মি করে রাখা হয়।


আন্দোলনের চাপেই তাদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছে উল্লেখ করে মন্টি চাকমা আরো বলেন, ছেড়ে দেয়ার আগে নিজেদের অপরাধ আড়াল করতে তারা হাস্যকর নাটক করে, তাদের দিয়ে ভিডিও রেকর্ডিং করিয়ে তাদের সপক্ষে কথা বলতে বাধ্য করায়। তাদের সাথে ছবিও তুলেছেন।


তিনি বলেন, মূলত তিনটি শর্ত দিয়ে অভিভাবক ও জামিনদারের হাতে তাদেরছেড়ে দেয়া হয়েছিল। কোন কোন মিডিয়ায় মুক্তিপণ দেয়ার কথা বলা হলেও, তা সত্য নয়। শর্তগুলো হল রাজনীতি করা যাবে না, নব্য মুখোশবাহিনীর সর্দার বর্মার অনুমতি ছাড়া গ্রামের বাইরে যেতে পারবে না ও অপহরণের বিষয়ে কারোর কাছে মুখ খোলা যাবে না। এসব শর্ত ভঙ্গ হলে তাদের ও অভিভাবকদের কঠোর শাস্তি ভোগ করতে হবে।


মন্টি চাকমা তার লিখিত বক্তব্যে আরো বলেন, তিনি দেশবাসীর নিকট সত্য ঘটনা তুলে ধরায় তার পরিবারের উপর সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়েছে। তার বাবা ও বড় ভাইকে নব্য মুখোশবাহিনীর সর্দার তপন জ্যোতি চাকমা ওরফে বর্মা প্রতিনিয়ত মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। তারা এখন পালিয়ে রয়েছেন। তার পরিবারকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদের ভয় দেখাচ্ছে। শুধু তাই নয়, বর্মা তাকে যেখানে পাবে সেখানে মেরে ফেলবে বলে আমার মা’কে ফোন করে হুমকি দিয়েছে। আমার ও দয়াসোনার পরিবার চরম নিরাপত্তহীনতায় রয়েছে।


সংবাদ সম্মেলন থেকে ১৯ নারী-ছাত্র-যুব সংগঠনের পক্ষে থেকে ৮ দফা দাবি জানানো হয়। সেগুলো হল অনতিবিলম্বে অপহরণকারী দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান, মন্টি ও দয়াসোনা চাকমার পরিবারের নিরাপত্তা বিধান, অপহরণকারী ও তাদের মদদ দাতাদের গ্রেফতার ও বিচার,পাহাড় ও সমতলে সংঘটিত সকল ধর্ষণ-গুম-খুন-অপহরণের বিচারসহ ইত্যাদি।


সংবাদ সম্মেলন থেকে ১৯ সংগঠনসমূহের মধ্যে ঐক্য বজায় এবং পাহাড়-সমতলে নিপীড়ন নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকাসহ অপহরণকারীদের গ্রেফতার করা না হলে আবারো একযোগে রাজপথে নামার ও যৌথ কর্মসূচী ঘোষণা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ