• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
বর্তমান সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে আন্তরিক-পার্বত্য সচিব                    রাজস্থলীতে সেনাবহিনীর টহল দলের উপর সন্ত্রাসীদের হামলা, ১ সেনা সদস্য নিহত                    বাঘাইছড়িতে দুই নেতাকে হত্যার ঘটনায় ৫০ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা                    মহালছড়িতে প্রান্তিক চাষীদের মাঝে ফলদ চারা বিতরণ                    জুরাছড়িতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত                    রাবিপ্রবি`র জাতীয় শোক দিবস পালন                    গোল্ডেন জিপিএ পাওয়া নাজমুলের পাশে পানছড়ির অল নাইচ শিক্ষা ফাউন্ডেশান                    বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও বিনম্র শ্রদ্ধাভরে স্বরণ করলো রাঙামাটিবাসী                    বরকলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত                    পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নে পাহাড়ে বিরাজমান হত্যার রাজনীতি বন্ধ করতে হবে                    বাঘাইছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে জেএসএস`র এমএন লারমা গ্রুপের নিহত ২                    খাগড়াছড়িতে আদিবাসী দিবসে র‌্যালি ও মানববন্ধন                    নানা আয়োজনে বান্দরবানে বিশ্ব আদিবাসী দিবস পালিত                    রাঙামাটিতে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালিত                    পানছড়িতে ৩মাস ব্যাপি চাকমা ভাষার লেখার কোর্স উদ্বোধন                    প্রশিক্ষিত শিক্ষককের অভাবে আদিবাসী শিশুদের মাতৃভাষায় পাঠদানে সফলতা আসছে না                    খাগড়াছড়ির পানির রাজা’র উত্থান ও বিদায় কাহিনী                    পানছড়িতে ড্রেস মেকিং ও মোবাইল সার্ভিসিং প্রশিক্ষনার্থীদের সনদ বিতরণ                    রাজস্থলীতে ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধ পরিস্কার অভিযান                    বিলাইছড়িতে ঈদ উপলক্ষে ভিজিএফ চাউল বিতরণ                    রাঙামাটিতে সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    
 

রাঙামাটির ভারবোয়াচাপ বন বিহারে দুদিনের কঠিন চীবর দানোৎসব সমাপ্ত
চুক্তি বাস্তবায়িত হলে পাহাড়ের মানুষ নিরাপদে সুষ্ঠভাবে ধর্ম পালন করতে পারবে-উষাতন তালুকদার এমপি

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 26 Oct 2018   Friday

রাঙামাটি আসনের নির্বাচিত সাংসদ উষাতন তালুকদার ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর সম্পাদিত পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি যথাযথ বাস্তবায়ন হলে পাহাড়ের মানুষ নিরাপদে সুষ্ঠভাবে তাদের ধর্ম পালন করতে পারবে বলে মন্তব্য করেছেন। 

 

তিনি বলেন, ধর্ম পালনে শুধু সেই সময় নিরাপত্তা দিলে হবে না, সবাই চাই সমাজে সুষ্ঠুভাবে নিরাপদ জীবন যাপন করা, মানুষ যাতে ভালভাবে চলাচল ও খাওয়া-দাওয়া করতে পারে। তাই এই ধর্মীয় পূর্নক্ষেত্রে মধ্য দিয়ে প্রার্থনা করি প্রধানমন্ত্রীর যেন হেতু উৎপন্ন হয় যাতে পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নে মনের মধ্যে জাগ্রতবোধ উদয় হোক।


তিনি বলেন,গত সোমবার রাতে খাগড়াছড়ির গুইমারা জেতবন বৌদ্ধ বিহারে কে বা কারা বুদ্ধ মূর্তি উল্টে দিয়েছে। যখন সরকার নির্বাচন করতে চাইছে, যেখানে প্রবারনা পূর্নিমা পালিত হবে, কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হবে সেই সময়ে এই দুর্ঘটনা ঘটনা ঘটানো হয়েছে। এখানে মার সৃষ্টি হয়েছে।


তিনি বুদ্ধ ধর্মে যে শীল-নীতি রয়েছে তা যথাযথভাবে পালন করতে এবং যে যার অবস্থানে থেকে মৈত্রীভাবাপন্ন নিয়ে সবাইকে একতাবদ্ধভাবে থাকার আহ্বান জানান।


শুক্রবার রাঙামাটির বন্দুকভাঙ্গা ইউপি’র ভারবোয়াচাপ বন বিহারে ২৩তম কঠিন চীবর দানোৎসবের দুদিন ব্যাপী শেষ দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


ভারবোয়াচাপ বন বিহার প্রাঙ্গনে আয়োজিত ধর্মীয় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি আসনের সাংসদ উষাতন তালুকদার। স্বধর্ম দেশনা দেন ভারবোয়াচাপ বন বিহারে অধ্যক্ষ ধর্মতিলক মহাস্থবির. বক্কুলী মহাস্থবির, প্রজ্ঞারতœ মহাস্থবির ও সুধর্ম্মা মহাস্থবির। অনুষ্ঠানে বক্তব্যে দেন ভারবোয়াচাপ বন বিহারে সভাপতি চন্দ্র কুমার চাকমাও সাধারণ সম্পাদক বক্রসেন চাকমা। এ পূর্নানুষ্ঠানে মহাপূর্নবর্তী বিশাখা প্রবর্তিত ২৪ ঘন্টার মধ্যে তৈরীকৃত কঠিন চীবর উষাতন তালুকদার এমপি বিহারের প্রধানের উদ্দেশ্য প্রদান করেন। এর আগে বুদ্ধ ধর্মীয় সংগীত দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। পরে পঞ্চলশীল প্রার্থনা,অষ্টপরিস্কার দান, কঠিন চীবর, কল্পতরু, হাজার বাতি ও বুদ্ধ মূর্তি দান উৎস্বর্গ করা হয়। অনুষ্ঠানে শত শত বৌদ্ধ পূর্নাথীরা সমবেত হন।


ধর্মীয় দেশনায় বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুরা কৌশল কর্ম, সৎ চেতনা ও সৎ জীবন নিয়ে জীবনযাপন করতে এবং সকল প্রাণীর প্রতি মৈত্রী, অহিংসা ভাব পোষন করে সকলকে বুদ্ধ ধর্ম পালনের জন্য হিতোপোদেশ দেন।


উল্লেখ্য, আজ থেকে প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে ভগবান গৌতম বুদ্ধের জীবব্দশায় মহাপূর্নবতী বিশাখা কর্তৃক প্রবর্তিত ২৪ ঘন্টার মধ্যে সূতা কাটা শুরু করে কাপড় বয়ন, সেলাই ও রং করাসহ যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের দান করা হয় বলে একে কঠিন চীবর দান হিসেবে অভিহিত করা হয়।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ