তিন পার্বত্য জেলায় পাহাড়ীদের প্রধান সামাজিক উৎসব পালনে স্থগিতের আদেশ

Published: 02 Apr 2020   Thursday   

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের বিস্তার রোধকল্পে তিন পার্বত্য জেলার  পাহাড়ী সম্প্রদায়ের প্রধান সামাজিক উৎসব  বিজু-সাংগ্রাইং-বৈসু-বিষু-বিহু-চাংক্রান ও ১লা বৈশাখের (বাংলা  নববর্ষ) সকল ধরনের অনুষ্ঠান ও কার্যক্রম স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ।

 

গেল বুধবার মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের উপসচিব আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরীর স্বাক্ষরিত  এক পত্রে এই আদেশের কথা জানা গেছে। 

 

ওই আদেশে  উল্লেখ করা হয় করোনা ভাইরাস  জনিত রোগ  বিস্তার রোধকল্পে জনসমাগম পরিহার করার লক্ষে আগামী ১লা বৈশাখের সকল অনুষ্ঠান বা কার্যক্রমসহ তিন পার্বত্য জেলার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের সামাজিক উৎসব বিজু-সাংগ্রাইং-বৈসু-বিষু-বিহু-চাংক্রান স্থগিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা  গ্রহনের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।

 

জেলা প্রশাসক একে এম মামুনুর রশীদ জানান, এটি সরকারী আদেশ সবাইকে পালন করতে হবে। ইতোমধ্যে উপজেলায় এ আদেশ কার্যকর করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

 

উল্লেখ্য,  প্রতি বছর পুরাতন বছরকে বিদায় ও নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে  তিন পার্বত্য জেলায় বসবাসরত পাহাড়ী সম্প্রদায় ১২ এপ্রিল থেকে তিন দিন ব্যাপী ঐতিহ্যবাহী প্রধান সামাজিক উৎসব বিজু-সাংগ্রাইং-বৈসু-বিষু-বিহু-চাংক্রান পালন করে থাকে।  পার্বত্য চট্টগ্রামের (রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান) ১৪টি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পাহাড়ি জাতিসত্তাদের ঐতিহ্যবাহী প্রধান সামাজিক উৎসবটির উচ্চারনগতভাবে বিভিন্ন নামের পালন করলেও এর নিবেদন কিন্তু একই। তাই এ উৎসবটি পাহাড়িদের শুধু আনন্দের নয়, পার্বত্য চট্টগ্রামের সকল সম্প্রদায়ের সামাজিক, রাজনৈতিক অর্থনৈতিক, ঐক্য ও মৈত্রী বন্ধনের প্রতীকও বটে।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত