করোনা মুক্ত রাখতে কাজ করছে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসন

Published: 07 Apr 2020   Tuesday   

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাকে করোনা মুক্ত রাখতে জেলা প্রশাসনের প্রচেষ্টার কমতি নেই। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবারে খাগড়াছড়ি শহরের বিভিন্ন অলিগলিতে জনসচেনতা মূলক কার্যক্রম চালিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। আইন অমান্যকারী বিরুদ্ধে পরিচালনা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

 

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশসানের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাজ্জাদ হোসেন জানান খাগড়াছড়ি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এর নির্দেশে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে। খাগড়াছড়ি জেলার অবস্থা এখনো ভালো। আইন অমান্যকারীদের জড়িমানা করে আইনের আওয়াতায় নিয়ে আসা হচ্ছে। এবং অনেকে বুঝানো হচ্ছে। এছাড়া সন্ধ্যা ৬ টা থেকে পরবর্তী দিন সকাল ৭ টা পর্যন্ত ওষুধের দোকান ব্যাতিত সকল ধরনের দোকান পাঠ বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।

 

জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি মাঠে রয়েছে সেনাবাহিনী। বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় ঘুরে ঘুরে মানুষকে সচেতন করছেন তারা।  অনুরোধ করছেন যাতে বিনা কারনে কেউ ঘর থেকে বের না হন।

 

এদিকে খাগড়াছড়ির বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়,খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার অধিকাংশ গ্রাম লক ডাইন করেছেন এলাকাবাসীরা। খাগড়াছড়ি সদরের আনন্দ নগর,আপারপেরাছড়া,তেতুলতলা,রাজ্যমনি পাড়া, নয়ন পুরসহ বিভিন্ন এলাকায় দেখা যায়  এলাকাবাসীরা নিজেদের উদ্যোগে নিজের গ্রাম করোনা মুক্ত রাখতে লক ডাউন করেছেন। গ্রামবাসীর বাইরে কাউকে ঘরে কথা বাদ গ্রামে ঢুকতে দিচ্ছেন না। বিশেষ কারন ছাড়া গ্রামের কেউ গ্রামের বাইরে যেতে পারছেন না।

 

আপারপেরাছড়া যুব ক্লাবের সভাপতি সুব্রত চাকমা জানান নিজেরে গ্রাম করোনা মুক্ত রাখতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিশেষ কারন ছাড়া গ্রামের কাউকে গ্রামের বাইরে যেগে দেওয়া হচ্ছে না। গেলে ও ফিরে আসার সময় তাকে জীবানু নাশক ছিটিয়ে গ্রামে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে।

 

তেতুল তলার ময়মন চাকমা জানান কে কখন কোথা থেকে গ্রামে প্রবেশ করছে তা জানা যাচ্ছেন না এবং তিনি করোনা মুক্ত কিনা জানার কোন সুযোগ নেই। তাই গ্রামবাসীদের করোনা মুক্ত রাখতে এই লক ডাউন।

 

জেলা  খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন জানান খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা এখনো করোনা মুক্ত। আমরা আট জনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠিয়েছি, তাদের রির্পোট নেগেটিভ  এসেছে। আর দুজনের রির্পোট পাঠানো হয়েছে।

 

তিনি আরো জানান খাগড়াছড়ি স্বাস্থ্য বিভাগ সবাইকে সচেতন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। আর যারা সাধারণ রোগী তাদের ভালোভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্য বিভাগ সকল ধরনের রোগীকে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত