রাঙামাটিতে করোনায় ৪ জনের রিপোর্ট দ্বিতীয় দফায় ‘নেগেটিভ’

Published: 11 May 2020   Monday   

রাাঙামাটিতে চারজনের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিলো তাদের মধ্যে ৪ জনের রিপোর্ট দ্বিতীয় দফায় ‘নেগেটিভ’ এসেছে। তবে তাদের আবারো তৃতীয় দফায় নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয়েছে।


সোমবার চট্টগ্রাম থেকে আসা রিপোর্টে তাদের দ্বিতীয়বারের করোনা পরীক্ষার ফলাফলে ৪জনের রিপোর্ট দ্বিতীয় দফায় ‘নেগেটিভ’ এসেছে বলে জানান রাঙামাটি সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা।


তিনি বলেন, এর আগে রোবববার রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের দায়িত্বরত সিনিয়র নার্স ও হাসপাতাল এলাকার মোল্লা পাড়ার একজনের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এছাড়া রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের দায়িত্বরত সিনিয়র নার্সের সংস্পর্শে যাওয়া ৯ জন ডাক্তার ও নার্সের যে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে তাও নেগেটিভ এসেছে বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন। তবে তৃতীয় দফায় আবারো তাদের কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনষ্টিটিউট অভ ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজে (বিআইটিআইডি) পাঠানো হয়েছে। তৃতীয় দফার রির্পোট না আসা পর্যন্ত আমরা তাদের করোনা মুক্ত বলা যাবে না।


তিনি আরো জানান, চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজেজেজে (বিআইটিআইডি) ৪৬১ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ৩০১ জনের নমুনা নেগেটিভ পাওয়া গেছে। বাকি ১৬০ জনের নমুনার রিপোর্ট এখনো আসেনি।


উল্লেখ্য,আক্রান্ত এই চার জনের মধ্যে রাঙামাটি রিজার্ভ বাজার এলাকার ৯ মাসের এক শিশু, দেবাশীষ নগরের ১৯ বছরের এক তরুণ হাসপাতাল এলাকার মোল্লাপাড়ায় ৩৮ বছর বয়সী নার্স ও ৫০ বছর বয়সী এক শ্রমিক রয়েছে।


এদিকে সোমবার পর্যন্ত রাঙামাটি জেলায় ২১৪১ জনের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। রাঙামাটিতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১৪৭১ জন এবং প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টইনে রয়েছে ৬৭০। রোববার সকালের পূর্বে কোয়ারেন্টাইন থাকা সর্বমোট ১৭৭৬ জন কোয়ারেন্টাইন ছাড়পত্র পেয়েছেন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ৩৬৫জন। আইসোলেশনে কোন রোগী এখনো পর্যন্ত নেই।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : সত্রং চাকমা

মোহাম্মদীয়া মার্কেট, কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত