জুরাছড়িতে সামাজিক ও আচারণ পরিবর্তন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

Published: 24 Nov 2020   Tuesday   

রাঙামাটি জুরাছড়ি উপজেলায় ইউনিয়ন পর্যায়ে সামাজিক ও আচারণ পরিবর্তন বিষয়ক ক্ষুদ্র ও পরিবর্তন বিষয়ক ক্ষুদ্র পরিকল্পনা পর্যালোচনা এবং হালনাগাদ করণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

সোমবার ইউনিসেফ-বাংলাদেশ সহযোগীতায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের টেকসই সামাজিক সেবা প্রদান প্রকল্পের আয়োজন করেন। জুরাছড়ি ইউনিয়নের উপজেলা বিশ্রামাগারের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় টেকসই সামাজিক সেবা প্রদান প্রকল্পের উপজেলা প্রকল্প ব্যবস্থাপক বিনয় কৃষ্ণ চাকমার সভাপতিত্বে কর্মশালায় উদ্বোধন করেন জুরাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ক্যানন চাকমা। এ সময় স্বাস্থ্য ও পুষ্টি কর্মসূচী সমন্বয়ক রিচা চাকমা, প্রোগ্রাম অফিসার কৃষ্ণা কলি ত্রিপুরা উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালায় জুরাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সচিব, সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ড সদস্যগণ, সরকারি সেবাদান প্রতিষ্ঠানের ইউনিয়ন কর্মী, সাংবাদিক এবং পাড়া কর্মী উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালায় রির্সোস পার্সন হিসেবে ট্রেনিং ইন্সেট্রাক্টটর মোখলেছুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

 

কর্মশালায় বক্তারা বলেন, সুস্থ্য, সৃজনশীল শৈশবের জন্য প্রয়োজন আলোকিত সমাজ। সামাজিক অজ্ঞতার কারণে এখনো প্রান্তিক জনগোষ্ঠী যথাযথ ভাবে গর্ভবতী মায়েরা অনাবিজ্ঞ ধাত্রীর উপর নির্ভর করে অকালে জীবন হারাচ্ছে। অথচ নিকটতম স্বাস্থ্য কর্মী অথবা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গর্ভকালীন সময়ে কমপক্ষে ৪ বার চেকআপ করলে এই ঝুঁকি থেকে বাঁচা সম্ভব।

 

তারা আরো বলেন, পাহাড়ের দারিদ্রতার কারণে অনেক কন্যা শিশু প্রাথমিক গন্ডি পেরিয়ে আর্থিক ধন্যতায় পড়ালেখা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে তারা কিছু দিন পরে বাল্য বিবাহে আবদ্ধ হচ্ছে। এই বাল্য বিবাহ বন্ধে ইউনিয়ন, স্বাস্থ্য বিভাগ, মহিলা বিষয়ক ও পাড়া কর্মীর ভুমিকার জরুরী বলে মন্তব্য করা হয়। প্রয়োজনে বিবাহ রেজিষ্টার চালু করার প্রস্তাব করা হয়।

 

প্রান্তিক এলাকায় নোভেল করোনা ভাইরাস, স্বাস্থ্য সম্মত পায়খানা ব্যবহার, শিশুর পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ, কিশোরীদের  ঋতুকালীন পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার জন্য পাড়া পর্যায়ে উঠান বৈঠক, স্থানীয় স্ব-ভাষায় সচেতনতা মূলক নাটিকা, পাড়া পাড়ায় মা সমাবেশে মিনি প্রজেক্টরের মাধ্যমে সচেতনতা মূলক কাটুন প্রদর্শনের সুপারিশ করা হয়।

 

উল্লেখ্য গেল বছর, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের টেকসই সামাজিক সেবা প্রদান প্রকল্পের আয়োজন জুরাছড়ি ইউনিয়নে ১৫টি অগ্রাধিকার জীবনরক্ষাকারী আচারণ ঝুঁকি নির্নয় করা হয়। এসব পর্যালোচনা করে এসবের মধ্যে ৬টি ঝুঁকি নিয়ে আরো কাজ করার প্রয়োজনীয়তার রয়েছে বলে কর্মশালায় উপস্থাপন করেন জনপ্রতিনিধিরা।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : সত্রং চাকমা

মোহাম্মদীয়া মার্কেট, কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত