রাঙামাটিতে ১৯টি ইটভাটার সকল কার্যক্রম বন্ধঃ সাড়ে ৬লাখ টাকা জরিমানা

Published: 13 Feb 2022   Sunday   

হাইকোর্টের নির্দেশে রাঙামাটির কাউখালী,বাঘাইছড়ি ও লংগদু উপজেলার ১৯টি অবৈধ ইট ভাটার সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। এসব ইট ভাটায় অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৬লাখ টাকার জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।


জানা গেছে, পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন জেলায় অবৈধ ইট ভাটা বন্ধের জন্য হাই কোর্ট থেকে নিদের্শ পাওয়ার পর গেল কয়েক দিনে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করে। এর মধ্যে কাউখালী উপজেলায় ১৫টির মধ্যে ভ্রাম্যমান আদালত দশটি অবৈধ ইটভাটাকে ৬ল ১০হাজার টাকা জরিমানা করে। অপর ৫টি ইট ভাটায় হাইকোর্টের ষ্ট্রে অর্ডার থাকালেও জরিমানা করা হয়নি তবে সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বাঘাইছড়ি উপজেলায় দুটি অবৈধ ইটভাটাকে ৪০ হাজার জরিমানা ও সকল কার্যক্রম বন্ধ ঘোষনা এবং লংগদু উপজেলায় দুটি ইট ভাটার সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। রাঙামাটির এসব ইটভাটাগুলোতে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া এতদিন অবৈধভাবে ইট ভাটার কার্যক্রম চলে আসছিল।

 

লংগদু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, মোঃ মাইনুল আবেদীন জানান, লংগদুতে দুটি ইট ভাটা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে এ দুটি আগে থেকে বন্ধ থাকায় জরিমানা করা হয়নি।

 

উখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন আরা সুলতানা জাান, আমরা হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে এসব অবৈধ ইটভাটা বন্ধ করেছি। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত ইটভাটাগুলোতে সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। আর পাহাড় কাটার বিষয়ে কোন ছাড় দেওয়া হবে না। কোন ইটভাটারর মালিক যদি প্রশাসনের নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কোন কার্যক্রম পরিচালনা করে তাহলে আইন অনুযায়ী সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুশিয়ার করেদেন।


উল্লেখ্য, গত ২৫ জানুয়ারী হাইকোর্ট থেকে তিন পার্বত্য জেলা রাঙামাটি,বান্দরবান ও খাগড়াছড়িতে অবৈধ ইট ভাটা সকল অবৈধ ইট ভাটা সাত দিনের মধ্যে বন্ধের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে দুই সপ্তাহের মধ্যে আদালতের আদেশ প্রতিপালনের বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি দুই সপ্তাহের মধ্যে আদালতের আদেশ প্রতিপালনের বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দেওয়া হয়। এছাড়া আদালত অরেক আদেশে লাইসেন্স ছাড়া পরিচালনা করা সব ইট ভাটার তালিকা আগামী ছয় সপ্তাহের মধ্যে তৈরি করে আদালতে হলফনামা আকারে দাখিলের জন্য তিন জেলা প্রশাসক ও চট্টগ্রাম বিভাগের পরিবেশ অধিদফতরের পরিচালকসহ সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেওয়া হয়। বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি ফাতেমা নজীবের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : সত্রং চাকমা

মোহাম্মদীয়া মার্কেট, কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত