জুরাছড়িতে কোন প্রকার সন্ত্রাসীদের আস্তানা করতে দেওয়া হবে না

Published: 13 Dec 2017   Wednesday   

জুরাছড়ি জোন অধিনায়ক কেএম ওবায়দুল হক বলেছেন, জুরাছড়ি উপজেলায় কোন প্রকার সন্ত্রাসীদের আস্তানা করতে দেওয়া হবে না। যদি কোন সন্ত্রাসবাদ চাঙ্গা কিংবা মাথানারা দিয়ে উঠতে চায় সেই সন্ত্রাসীদের নির্মূল করাই আইন শৃংখলা বাহিনীর মূল কাজ। এই সন্ত্রাসীদের নির্মূলে সকলকে সহযোগীতায় এগিয়ে আসতে হবে।

 

বুধবার জুরাছড়ি উপজেলা সেনা বাহিনীর উদ্যোগে শান্তি সম্প্রীতি উন্নয়ন নিরাপত্তা বিষয়ক সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।


বনযোগীছড়া জোন সদন দপ্তরে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন  জুরাছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান উদয় জয় চাকমা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রাশেদ ইকবাল চৌধুরী, মেজর সম্রাট তানভীর, মেজর মীর তৈয়বুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শেফালি দেওয়ান, জুরাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ক্যানন চাকমা, বনযোগীছড়া ইউপি চেয়ারম্যান সন্তোষ বিজাশ চাকমা মৈদং ইউপি চেয়ারম্যান সাধনানন্দ চাকমআ, দুমদুম্যা ইউপি চেয়ারম্যান শান্তিরাজ চাকমা, জুরাছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মর্তা আব্দুল বাশেদসহ স্থানীয় হেডম্যান-কার্ব্বারীরা।

 

সম্মেলনে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা জুরাছড়ি উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতা অরবিন্দু চাকমার হত্যাকান্ডে সন্দেহ ভাজন নিরীহ মানুষদের গ্রেপ্তারে উদ্ধেগ প্রকাশ করে এ গণগ্রেপ্তারে এলাকা জুড়ে জনপ্রতিনিধিসহ সাধারণ মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে বলে দাবী করেন।


উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উদয় জয় চাকমা বলেন, আওয়ামীলীগের নেতা অরবিন্দু চাকমা আমার নিকটতম আতœীয় তার পরিবারকে সমবেদনা জানাতে আসতে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছিলেন। তাই জেলা পুলিশ সুপার ও থানা অফিসার ইনচার্জকে উপজেলায় আসতে পুলিশ তহল চেয়েছিলেন। কিন্ত দুঃখ জনক হলেও সত্যে কোন সহযোগীতা পাননি। তিনি উদ্ধেগ প্রকাশ করে বলেন যেখানে তাকে পুলিশ নিরাপত্তার সহযোগীতা দিচ্ছে না সেখানে সাধারণ জনগণ অসহায় হতে তা স্বাভাবিক।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুরাছড়ি জোন অধিনায়ক কেএম ওবায়দুল হক আরো বলেন, সাধারণ নিরীহ জনগনের ভয়ভীতি পাওয়ার কোন কারণ নেই। শুধু মাত্র এলাকা থেকে চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের নির্মূল করতে হবে। আইন-শৃংখলা বাহিনীর লক্ষ্য সাধারণ জনগণ নয় শুধু মাত্র সন্ত্রাসীদের।


তিনি আরো বলেন, আওয়ামীলীগের নেতাকে হত্যাকান্ডে কোন দলের সদস্য জড়িত নয়। এই হত্যা কান্ড ঘটিয়েছে একটি সন্ত্রাসী দল। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা পরায়ন না হয়ে শুধু মাত্র সন্ত্রাসীদের নিমূল করার জন্য বদ্ধপরিকর হয়ে আইন-শৃংখলা বাহিনীকে সহযোগীতার মাধ্যমে সবাই এগিয়ে এলে আবার জুরাছড়ি উপজেলায় শান্তি ফিরে আসবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত