বান্দরবানে হোটেলে আটকে রেখে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক

Published: 05 May 2019   Sunday   

বান্দরবানে এক পাহাড়ি ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জেলা শহরের আবাসিক হোটেলে আটকে রেখে পাহাড়ি যুবকটি ছাত্রীটির উপর শারীরিক নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গেল ১০ দিন ধরে আবাসিক হোটেলে আটকিয়ে রাখার পর পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষক উশৈসিং মারমাকে আটক করেছে পুলিশ।


ভিকটিমের সঙ্গে আলাপে জানা যায়, গেল ২৩ এপ্রিল রোয়াংছড়ি উপজেলা তারাছা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ঘেরাউ মুখ পাড়ার বাসিন্দা অংশৈনু মারমা ছেলে উশৈসিং মারমা তাকে ফুসলিয়ে জেলা শহরে নিয়ে আসে। পূর্ব পরিচয়ের সূত্রে ছেলেটিকে বিশ^াস করে সে শহরে আসে। এরপর ছেলেটি বিভিন্ন প্রলোভন ও ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক তাকে শারীরিক নির্যাতন চালায়। এভাবে ১০দিন ধরে শহরের দুইটি আবাসিক হোটেলে ভয়ভীতি দেখিয়ে আটকে রেখে নির্যাতন চালায় যুবকটি।


স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার পরিবারের সদস্যদের মোখিক অভিযোগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলা শহরের বাস ষ্টেশন এলাকা থেকে ছাত্রীটিকে উদ্ধার করে। এরপর ধর্ষক উশৈসিং মারমাকে আটক করা হয়। গতকাল শনিবার এ ঘটনায় ছাত্রীটির শারীরিক পরীক্ষার জন্য তাকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


ছাত্রীটির পিতা জানান, লেখাপড়ার জন্য রোয়াংছড়ি সদরে তার ছোট ভাইয়ের মেয়ের সাথে তার মেয়েকে বাসা ভাড়া করে রেখেছিলেন। তার ছোট গত ২৩ এপ্রিল রাতে মোবাইল ফোনে জানায়, তার মেয়েকে পাওয়া যাচ্ছে না। সম্ভাব্য বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ নিয়েও পাওয়া যায়নি। পরে জানতে পারেন রোয়াংছড়ি ঘেরাউ মুখ পাড়ার এক ছেলের সঙ্গে জেলা শহরে কোনো এক জায়গায় আসে। পরে পুলিশের সহায়তায় তার মেয়েকে উদ্ধার করেন।


রোয়াংছড়ি থানার ওসি মো: শরিফুল ইসলাম জানান, ছাত্রীটিকে উদ্ধার করে ধর্ষক উশৈসিং মারমাকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অপহরণসহ ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার ভিকটিমকে পরীক্ষার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত