প্রবল বর্ষণে পানছড়িতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি,সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

Published: 10 Jul 2019   Wednesday   

অবিরাম ভারী বর্ষণে ও পাহাড়ী ঢলের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিতসহ খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কয়েক কোটি টাকা।

 

পানছড়ি উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়,ভেঙ্গে গেছে দুধুকছড়া ফুট ব্রীজ, নদীর গর্ভে বিলীন হচ্ছে  উপজেলার চেংগী ইউপি কার্যালয়। বন্ধ হয়েছে উপজেলার মুনিপুর-তারাবন সড়ক যোগাযোগ। উপজেলার চেঙ্গী ইউনিয়নে ৭টি বসতবাড়ী বন্যার পানিতে ভেঙ্গে যাওয়াসহ ৩৬টি পরিবার, লতিবান ইউনিয়নের ৪টি পরিবারে প্রায় সহ¯্রাধিক মানুষ পানি বন্ধী হয়েছে।

 

বানবাসীদের জন্য পূজগাং মূখ উচ্চ বিদ্যালয়, লতিবান ইউনিয়ন কার্যালয়ে আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। পানি কমে যাওয়ায় পূজগাং মূখ উচ্চ বিদ্যালয়ে আশ্রিতরা নিজ নিজ ঘরে চলে গেছে। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে চেঙ্গী ইউনিয়নে।

 

চেঙ্গী ইউপি চেয়ারম্যান কালা চাঁদ চাকমা বলেন, গেল সোমবার রাতে নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে উপজেলার চেংগী ইউপি কার্যালয়সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। বানের পানিতে ভেঙ্গে গেছে  মধু মঙ্গল পাড়ার চন্দ্র জয় চাকমা, বিনয় চাকমা, জীবন্ত চাকমা, ধন্য চন্দ্র পাড়ার তক্ক চাকমা, মনজাঙ্গা চাকমা, বেঙ পেদা চাকমা, কিনাধন বৈদ্য পাড়ার তুকি চাকমার বসতবাড়ী মুনিপুর-তারাবন সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শতশত লোক আসা-যাওয়া করে। যান চলাচল বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রীরা।

 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে- দুধুকছড়া ফুটব্রীজটি মাঝখানে পিলার দুটি নদীর গর্ভে চলে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।এ ব্রীজ দিয়ে লোগাং ও চেঙ্গী ইউপির প্রায় ২০ হাজার মানুষ আসা-যাওয়া করে। স্থানীয়রা জানান-প্রবল বর্ষণে পাহাড়ী ঢলের পানির ¯্রােতের কারণে গত সোমবার রাতে ব্রীজটি নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

 

পানছড়ি উপজেলা প্রকৌশলী অরুন কুমার দাস বলেন- ব্রীজটি এলজিইডি অধীনে হলেও ব্রীজটি আমাদের অধিদপ্তর থেকে করা হয়নি। ব্রীজটি পার্বত্য চুক্তির বছরে করা হয়েছে।সম্ভবত উন্নয়ন বোর্ড বা জেলা পরিষদের অধীনে করা হয়েছে। তখনকার সময় এ ব্রীজগুলো ১৮-২০ লাখ টাকা হতে পারে।

 

পানছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন- ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের কাছে সরেজমিনে গিয়েছি। ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা করা হচ্ছে। তাদেরকে সহযোগিতা করাসহ ব্রীজটি আসা-যাওয়ার উপযোগী ও মুনিপুর-তারাবন সড়ক স্বাভাবিক করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত