আসুরিক চেতনার বিনাশ করে সূখী ও সমৃদ্ধ শান্তিময় পার্বত্য চট্টগ্রাম গঠনের আহ্বান

Published: 06 Oct 2019   Sunday   

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা বলেছেন, শারদীয় দুর্গোৎসব অসুর দমন এবং শিষ্টের পালনের শিক্ষা দেয়।  এই শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে ব্যক্তি ও সমাজ জীবন থেকে অন্যায়-অনাচার দূর করতে হবে। আসুরিক চেতনার বিনাশ করে সূখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ তথা শান্তিময় পার্বত্য চট্টগ্রাম গঠনে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

 

রোববার জুরাছড়ি উপজেলায় শ্রী শ্রী রাধা-কৃষ্ণ হরি মন্দিরের পূজা মন্ডপ পরির্দশন, নগদ অর্থ, অসহায় ও সুবিধা বঞ্চিতদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ সময় তিনি এ আহ্বান জানান।

 

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা, বিশেষ অতিথি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান প্রবর্তক চাকমা, মহিলা লীগের সভানেত্রী কল্পিতা চাকমা, যুব লীগের নেতা রন্টু চাকমা, ছাত্র লীগের সভাপতি জ্ঞন মিত্র চাকমা, দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক তপন কান্তি দে প্রমূখ।

 

তিনি আরো বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজা একটি সার্বজনীন উৎসব। এই উৎসব বাংলাদেশের ঐতিহ্য। সারা দেশের ন্যয় পার্বত্য দুর্গম এলাকা গুলোতেও উৎসব মূখর পরিবেশে এই উৎসব পালিত হচ্ছে। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রকৃষ্ট উদাহারণ। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সকলকে দেশ গঠনে এগিয়ে আসতে হবে।

 

শারদীয়া দুর্গা পূজা পরিদর্শনে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা সন্ধ্যায় উপজেলার যক্ষা বাজার শ্রী শ্রী রাধা-কৃষ্ণ হরি মন্দিরে যান। সেখানে তাকে স্বাগত জানান পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি মদন মোহন নাথ ও দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক তপন কান্তি দে।

 

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য মন্ডপে আগতদের সাথে কুশল বিনীময় করেন। পূজা উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকে সদস্যকে বিভিন্ন রকমের মিষ্টি ও ফল দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

 

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত