• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রাঙামাটিতে বিপুল চোরাই সেগুন কাঠ জব্দ                    আষাঢ়ী পূর্নিমার মধ্য দিয়ে রাঙামাটিতে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের তিন মাসের বর্ষাবাস শুরু                    লেখাপড়ায় শিক্ষার্থীদের জ্ঞান অর্জনে শিক্ষার্থীদের আরো বেশী মনোযোগি হতে হবে-দীপংকর তালুকদারএমপি                    জাপানে বিশ্ব শিশু সমাবেশে যোগ দিল রাঙামাটির মেয়ে রাইন চাকমা                    বিলাইছড়িতে দুর্গত পরিবারের মাঝে চাউল বিতরণ                    রাঙামাটিতে দৈনিক যায় যায় দিনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত                    বরকলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে চিকিৎসা সেবাও ত্রান সামগ্রি বিতরন                    রাঙামাটি সরকারী কলেজের নবীণ বরণ ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা                    বিলাইছড়িতে বন্যা দুর্গতদের মাঝে জেলা পরিষদের আর্থিক সহায়তা                    চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ কেন্দ্রে আশ্রিতদের মাঝে খাবার বিতরণ                    টানা বর্ষনে বরকলে ১৮টি গ্রাম পানিতে তলিয়ে গেছে, পানি বন্দি ৩হাজারের অধিক পরিবার                    কাপ্তাই হ্রদে ভাসমান অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার                    টানা ভারী বৃষ্টিপাতে ফারুয়া বাজারসহ ৭ টি গ্রাম প্লাবিত                    মহালছড়িতে বন্যা দুর্গতদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছে সেনাবাহিনী                    টানা বর্ষনে কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধসে নিহত ২, আহত ৪                    ‘হৃদয়ে বাঘাইছড়ি’ রাঙামাটি ইউনিটের কমিটি গঠন                    রাঙামাটিতে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে লোকজনদের ভিড়, বাঘাইছড়িতে বন্যা অপরিবর্তিত                    বাঘাইছড়িতে বন্যার্তদের মাঝে জেলা পরিষদের আর্থিক সহায়তা প্রদান                    চন্দ্রঘোনায় শিক্ষকদের নিয়ে আরস্টেপের কর্মশালা অনুষ্ঠিত                    রাঙামাটিতে ৪৪টি বৌদ্ধ বিহারে ত্রিপিটক বিতরণ                    কাপ্তাইয়ের পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্থ তিন পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ                    
 

চাকমা সার্কেল চীফ ব্যারিষ্টার দেবাশীষ রায়ের
স্বল্প সংখ্যার জাতিসত্ত্বাদের কোটা বহালের দাবীতে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি

ডেস্ক রিপোর্ট : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 02 Oct 2018   Tuesday

পাহাড়িসহ দেশের স্বল্প সংখ্যার জাতিসত্ত্বাদের সরকারী চাকরিতে সংরক্ষিত আসন বহাল ও কার্যকরের দাবীতে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন চাকমা সার্কেল চীফ ব্যারিষ্টার দেবাশীষ রায়।

 

সোমবার ঢাকায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন চাকমা সার্কেল চীফ ব্যারিষ্টার দেবাশীষ রায়।


স্মারকলিপিতে বলা হয়, মন্ত্রীপরিষদ সচিবের নেতৃত্বাধীনে সাম্প্রতিককালে পেশকৃত প্রতিবেদনে স্বল্প সংখ্যার জাতিসত্তার সদস্যদের জন্য কোটা পদ্ধতির বিলুপ্তির জন্য যে সুপারিশ ও যৌক্তিকতার স্বপক্ষে মতামত প্রদান করা হয়েছে তা সংশ্লিষ্ট জাতিসত্তাদের প্রতিনিধিদের সাথে যথাযথ আলোচনা ও পরামর্শের ভিত্তিতে এবং জাতিসত্তাসমূহের বর্তমান আর্থ-সামাজিক মর্যাদার যথাযথ পর্যালোচনার ভিত্তিতে করা হয়নি। শিক্ষা (প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও স্নাতক), স্বাস্থ্য সেবা (গ্রাম, ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে), কর্মসংস্থান, খাদ্য ও পুষ্টি-নিরাপত্তা, সুপেয় জলের সরবরাহ, দারিদ্র বিমোচন, বিদ্যুৎ-সংযোগ, যোগাযোগ ব্যবস্থা, ভূমি-মালিকানার অধিগম্যতা, ইত্যাদি বিষয়ে চাকমা সার্কেলের পাহাড়িসহ দেশের স্বল্প জনসংখ্যার জাতিসত্তার সদস্যদের অবস্থান দেশের অন্যান্য শ্রেণীর নাগরিকদের চেয়ে যে অনেক নিম্নস্তরে রয়েছে।


স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়, পার্বত্য চট্টগ্রামের ভারত- প্রত্যাগত পাহাড়ি শরণার্থীদের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ এবং আভ্যন্তরীণ পাহাড়ি উদ্বাস্তুুদের সিংহভাগ এখনও তাঁদের নিজস্ব ভিটা মাটিতে অ-পুনর্বাসিত রয়েছে এবং ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি এখনও সমাপ্ত হয়নি।


এ অঞ্চলের ভূমি বিরোধসমূহের নিষ্পত্তি এখনও সমাপ্ত হয়নি। এ অঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে, বিশেষ করে প্রত্যন্ত উপজেলাগুলোতে (বাঘাইছড়ি, বিলাইছড়ি, দীঘিনালা, লক্ষিছড়ি, তানচি, রুমা, ইত্যাদি) এবং রিজার্ভ ফরেস্টএলাকাতে ( কাসলং, রাইংখ্যং, সাংগু ও মাতামুহুরি), ভূমির অধিকারের অস্বীকৃতি, প্রত্যন্ততা এবং উন্নয়ন অবহেলার কারণে হা-ভাত, পুষ্টিহীনতা, মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যু, নিরক্ষরতা, বেকারত্ব ইত্যাদি ভয়াবহ রুপ ধারণ করে চলেছে।


এই পরিপ্রেক্ষিতে, স্বল্পসংখ্যার জাতিসত্তার সদস্যদের বর্তমান মর্যাদা “অনগ্রসর” নয় মর্মে সন্মানিত মন্ত্রী পরিষদ সচিবের উপসংহার অনুমান-প্রসূত এবং সরকারী ও অন্যান্য গ্রহণযোগ্য আর্থ-সামাজিক সমীক্ষা ও আদম-শুমারির তথ্যের পরিপ্রেক্ষিতে ত্রুটিপূর্ণ ও ভিত্তিহীন এবং ফলশ্রুতিতে, বৈষম্যমূলক বলে স্মারকলিপিতে দাবী করা হয়েছে।


স্মারকলিপিতে বলা হয়,সমতল অঞ্চলের রাজশাহী বিভাগ, বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চল, সিলেট বিভাগ, সুন্দরবন অঞ্চল, বৃহত্তর পটুয়াখালী-বরগুনা অঞ্চল, বৃহত্তর কক্সবাজার-চট্টগ্রাম অঞ্চল প্রভৃতি এলাকার রিজার্ভ ফরেস্ট, চা-বাগান, জাতীয় উদ্যান, ইকো পার্ক, অভয়ারণ্য ও অন্যান্য এলাকার স্বল্পজনসংখ্যারজাতিসত্তারসদস্যদের ভূমিহরণের সমস্যাও অনুরুপভাবে এখনও চলমান রয়েছে, যাতে, অন্যান্যের মধ্যে, তাঁদের দরিদ্রতা বৃদ্ধমান রয়েছে এবং তাঁদের অন্যান্য আর্থ-সামাজিক, নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার আংশিক বা সম্পূর্ণভাবে অ-বাস্তবায়িত রয়েছে।


এমতাবস্থায়, পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি সহ দেশের অন্যত্রের স্বল্প সংখ্যার জাতিসত্তাদের মৌলিক অধিকার সংরক্ষণের ক্ষেত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আমলে প্রণীত বৈষম্যহীন জননীতি অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে তাঁর সুযোগ্য তনয়া হিসেবে আমরা আপনার কাছে ন্যায্য, বৈষম্যহীন, বলিষ্ঠ ও অন্যান্যভাবে যথাযথ পদক্ষেপ আশা করি।

 

স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়, চাকমা সার্কেলের অধিবাসীগণ কৃতজ্ঞতা ভরে সরণ করে যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আমলে এবং তাঁর প্রত্যক্ষ নির্দেশে আমার নাবালক অবস্থায় আমি যুবরাজ থাকা কালীন সদাশয় সরকার গেজেট বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আমাকে চাকমা চীফ-এর পদ ও মর্যাদায় নিয়োগদান ও আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি প্রদান করেন। যেহেতু সাম্প্রতিক কালের কোটা সংস্কারের আন্দোলনের মুল দাবি ছিল কোটা পদ্ধতির সংস্কার, এবং কোটা পদ্ধতির বিলুপ্তি নয়, এবং যেহেতু প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ক্ষেত্রে কোটা বরাদ্ধ বহাল রাখার পক্ষে তাঁর মতামত ব্যক্ত করেছিলেন, আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস যে আমাদের দাবি যৌক্তিক ও ন্যায্য, এবং প্রধানমন্ত্রী ও দেশের আপামর জনসাধারণের অভিপ্রায়ের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ।


স্মারকলিপিতে সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির স্থায়িত্বশীল লক্ষ্যমাত্রার যথাযথ ও পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন এবং কাংখিত আর্থসামাজিক উন্নতি সাধিত হয়েছে মর্মে যথাযথ সমীক্ষা-লব্ধ তথ্য, নির্দেশক ও সূচক প্রাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত স্বল্প সংখ্যার জাতিসত্ত্বাদের জন্য প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর সহ সকল সরকারী চাকরীর সংরক্ষিত আসন অব্যাহত রাখা ও পূর্ণাঙ্গভাবে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী জানানো হয়েছে।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ