• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
পার্বত্য চুক্তিতে সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক ও বৈষম্যমূলক ধারাগুলো সংশোধনের দাবী                    ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে রাঙামাটির জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন                    চিম্বুর পাহাড়ে পর্যটন ও পাঁচ তারা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ                    বান্দরবানের উচ্ছেদ করে চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচতারা হোটেল ও বিনোদন পার্ক নির্মানের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে মানববন্ধন                    জলবায়ু পরিবর্তন অভিযোজনে পার্বত্য এলাকায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সার্বিক উন্নয়ন বিষয়ক জেলা পর্যায়ে রাঙামাটিতে মতবিনিময় সভা                    খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা                    নানিয়ারচরের আয়েশার মানবিক আবেদন                    রাঙামাটিতে করোনায় নতুন করে আরো ৬ জনের পজিটিভ,মোট আক্রান্ত ১০৩৮ জন                    আর্ন্তজাতিক নারী মানবধিকার রক্ষা দিবস রাঙামাটিতে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা                    রাঙামাটির রাজস্থলীতে তুইনুমং মারমা হত্যা মামলায় কাপ্তাই চিৎমরম ইউপি চেয়ারম্যানসহ আটক ২                    আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশনের একটি টিম রারাবিপ্রবির উপাচার্যের সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে                    বাঘাইছড়িতে এক কিশোরের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা                    রাঙামাটির রাজ বন বিহারে কঠিন চীবর অনুষ্ঠান সমাপ্ত                    আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে দীঘিনালায় আলোচনা সভা                    খাগড়াছড়ির সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের কমিটি বাতিলের দাবী                    বিলাইছড়িতে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস পালিত                    মাস্ক না পরায় রাজস্থলী বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান                    বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড় থেকে ম্রোদের উচ্ছেদের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে তিন সংগঠন                    রাঙামাটিতে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা ক্যাম্প ও ঔষুধ বিতরণ                    চিম্বুকের ম্রোদের জায়গা দখল করে ফাইভ স্টার হোটেল ও পর্যটন স্থাপনা নির্মাণের লিজ বাতিলের দাবি পিসিপি’র                    আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে রাঙামাটিতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা                    
 

ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতে উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ড বন্ধের আহ্বান জানিয়ে পানছড়িতে বিক্ষোভ সমাবেশ

ডেস্ক রিপোর্ট : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 08 Oct 2020   Thursday

জেএসএস-এর প্রতি ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতে উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ড বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ির পানছড়িতে  বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

পানছড়ি ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ও লোগাং ইউপি চেয়ারম্যান প্রত্যুত্তর চাকমার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বার্তায় বলা হয়, পানছড়ি ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত প্রতিরোধ কমিটি’র উদ্যোগে এই বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পানছড়ি ভ্রাতিঘাতি সংঘাত প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক ও পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান শান্তি জীবন চাকমা। কমিটির সদস্য সঞ্চয় চাকমা`র সঞ্চালনায় সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন কমিটির সদস্য সচিব ও ১নং লোগাং ইউপি চেয়ারম্যান প্রত্যুত্তর চাকমা, সাবেক ২নং চেঙ্গী ইউপি চেয়ারম্যান অনিল চন্দ্র চাকমা ও নারী মেম্বার সুশীলা চাকমা প্রমুখ। সমাবেশে উপস্থিত জনতা হাত উঁচিয়ে ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত প্রতিরোধ কমিটির উত্থাপিত দাবি ও আহ্বানের প্রতি সমর্থন জানান।

 

বক্তারা বলেন, আমরা পানছড়ি উপজেলার জনগণ শান্তিপ্রিয়, তবে আমরা নিজের জাতীয় অস্তিত্ব ও অধিকারের জন্য সংগ্রাম করতে সব সময় প্রস্তুত। আমরা জুম্মদের মধ্যে ঐক্য চাই, ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত চাই না।  গেল ২২ থেকে ২৩ বছর ধরে চলা সংঘাতে আমরা জাতির অনেক শ্রেষ্ঠ সন্তানকে হারিয়েছি। সে কারণে ইউপিডিএফ ও জেএসএস—এর মধ্যে ২০১৮ সালে সমঝোতা হয়েছে শুনে আমরা অত্যন্ত খুশী হয়েছি। আমরা মনে করি এই সমঝোতা দুই পার্টির উচ্চ নেতৃত্বের রাজনৈতিক দূরদর্শীতা ও প্রজ্ঞার পরিচায়ক। আমরা এই সমঝোতাকে সর্বান্তকরণে সমর্থন করি ও স্বাগত জানাই। কারণ এই সমঝোতা জুম্ম জাতির জন্য এক মহা আশির্বাদ ও সবার জন্য মঙ্গলজনক। উক্ত সমঝোতা না হলে হয়তো এতদিন আরও অনেক প্রাণ অকালে ঝড়ে যেতো, অনেক মায়ের কোল খালি হতো, অনেক জুম্ম নারী বিধবা হতো, অনেক নিষ্পাপ শিশু পিতৃহীন হতো। আর পুরো জুম্ম সমাজ হতো বিধ্বস্ত, পঙ্গু।

 

বক্তারা আরো বলেন, যেখানে সকল জুম্ম পার্টিগুলো একজোট হয়ে জাতীয় অস্তিত্ব রক্ষার জন্য সংগ্রাম করার কথা, সেখানে তাদের মধ্যে হানাহানি কখনো কাম্য নয়। এতে জুম্মদের ক্ষতি ছাড়া লাভ হয় না। শাসকগোষ্ঠী চায় আমরা জুম্মরা খুনোখুনি করে, ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত করে নিজেরাই শেষ হয়ে যাই, ধ্বংস হয়ে যাই। সেই জন্য তারা নানা ষড়যন্ত্র করে, নানা ফাঁদ পাতে। আমরা শাসকগোষ্ঠীর সেই ফাঁদে পা না দেয়ার জন্য সকল জুম্ম দলকে আহ্বান জানাচ্ছি।

 

“ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত প্রতিরোধ কমিটি” গঠনের বিষয়ে তারা বলেন, আমরা স্পষ্ট দেখতে পাই, গত ২২/২৩ বছর ধরে ভ্রাতৃঘাতি সংঘাতে জর্জরিত হয়ে আমাদের জুম্ম জাতি আজ চরম সংকটে পতিত হয়েছে। এ অবস্থায় আমরা আর চুপ করে বসে থাকতে পারি না। আমরা আর চাই না এই সংঘাতের কারণে জাতিগতভাবে, পারিবারিকভাবে ও ব্যক্তিগতভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হই।

--প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ