• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে রাঙামাটিতে মোহাম্মদ হোসেন নামের এক বয়োবৃদ্ধের সংবাদ সন্মেলন                    মহালছড়িতে স্থানীয় পর্যায়ে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) বাস্তবায়ন বিষয়ক                    কারিতাসের উদ্যোগে রাজস্থলীতে বিনামূল্য ছাগল বিতরণ                    কাপ্তাইয়ে বৈদেশিক কর্মসংস্থান বিষয়ক শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত                    রাঙামাটিতে ৭৯ হাজার শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর হবে                    মুজিববর্ষ উপলক্ষে কাপ্তাইয়ে `ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমাদের করণীয় ` শীর্ষক সেমিনার                    আলীকদমে এসডিজি বাস্তবায়ন বিষয়ক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত।                    চোখের দৃষ্টি নিয়ে বাঁচতে চায় সুপ্রিয় চাকমা                    খাগড়াছড়িতে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে কারো সাথে লেনদেন না করার আহ্বান এসপি’র                    খাগড়াছড়িতে সনাক-এর সভায় জেলার দুর্নীতি-অনিয়ম নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ                    খাগড়াছড়িতে বুধবার লক্ষ শিশুকে ভিটামিন “এ” খাওয়ানো হবে                    ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে তথ্য সংগ্রহকারী-সুপাভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ                    পাহাড়ে উন্নয়নের আলো পৌছে দিতে সব রকম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার-জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা                    চন্দ্রঘোনায় টিউবওয়েলের পানি পানে অযোগ্য, দুভোর্গ চরমে                    রাঙামাটিতে ট্রাক চালক কল্যাণ সমিতির মৃত্যুবরণকারী সদস্যের পরিবারদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান                    রাঙামাটিতে ছাত্রলীগ নেতা দীপংকর’র পিতৃ বিয়োগ, নেতা-কর্মীদের শোক                    রামগড়ে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু নির্মান কাজের পরিদর্শনে ভারতীয় হাইকমিশনার                    রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদ থেকে শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার                    রাঙামাটি জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ৩দিন ব্যাপী কর্মসূচী                    পানছড়িতে তথ্য প্রাপ্তির অধিকারে নারীর অগ্রগতি শীর্ষক প্রকল্পের অভিজ্ঞতা বিনিময় কর্মশালা                    কাপ্তাইয়ের দু`শিক্ষার্থীর জাতীয় পুরস্কার অর্জন                    
 

আবেগ আনন্দ উল্লাসে সম্পন্ন হলো চন্দ্রঘোনা ফোরামের মিলন মেলা

নজরুল ইসলাম লাভলু,কাপ্তাই : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 23 Feb 2019   Saturday

"চলো হৃদয়ের টানে ফিরি প্রাণের শৈশবে" এই শ্লোগানকে সামনে রেখে শুক্রবার কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনা ফোরামের উদ্যোগে মিলন মেলা সম্পন্ন হয়েছে। ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর চন্দ্রঘোনা ফোরামের এযাবৎ কালের সবচেয়ে বড় মিলন মেলা এটি। এ মিলন মেলায় দেশের বিভিন্ন স্থান ও বিদেশ থেকে আসা প্রায় পাঁচ হাজার চন্দ্রঘোনিয়ানের সমাগম ঘটে মিলন মেলায়।

 

চন্দ্রঘোনার কেপিএম আবাসিক এলাকার ব্রিক ফীল্ড মাঠে আয়োজিত মিলন মেলায়   সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, বিসিআইসি`র উর্ধ্বতন মহাব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান টিপু, কেপিএমের ব্যসস্থাপনা পরিচালক ডঃ এমএমএ কাদের, চন্দ্রঘোনা ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মোঃ জিয়াউল হক জিয়া,চন্দ্রঘোনা ফোরাম চট্টগ্রামের সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকন।এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন আয়োজক কমিটির কর্মকর্তা সাহাব উদ্দিন আজাদ,রুমি,মেজবা তালুকদার,ঝুমা, বেলী,শেখ পেয়ারুসহ আরো অনেকে। সন্ধ্যায় "নাটাই বেন্ড"এর আয়োজনে সঙ্গীত পরিবেন করা হয়। এসময় ব্রীক ফিল্ড মাঠ মেলা প্রাঙ্গন কানায় কানায় ভরে উঠে। কোথাও তিল ধারনের ঠাঁই ছিল না। 

 

মিলন মেলার শুরুতেই গান,বাজনা,পুরাতন বন্ধু বান্ধবদের সাথে দেখা,আড্ডা, ছবি তোলা, কমিটি পরিচিতি,  স্মৃতিচারন,প্রাক্তন শিক্ষক- শিক্ষিকাদের সন্মাননা প্রদান করার মধ্য দিয়ে জমে উঠে মিলন মেলা। স্মৃতিচারণ পর্বে অনেকে বলেন, তারা দেশ-বিদেশের অনেক স্থানেই গেছেন, ঘুরেছেন।কিন্ত্তু চন্দ্রঘোনার মতো ভাল কোথাও লাগেনি তাদের কাছে। সব সময় তাদের পিছু টেনেছে চন্দ্রঘোনা। আর এই নাঁড়ির টানেই তারা ছুঁটে এসেছেন চন্দ্রঘোনায়। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সন্মাননা প্রদান করার সময় প্রাক্তন অনেক শিক্ষক আবেগে কান্না করে। এসময় পুরো পেন্ডেল জুড়ে পিনপতন নিরব হয়ে পড়ে । শিক্ষকরা বলেন, তাদের হাতে গড়া হাজার হাজার ছাত্রছাত্রী আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিষ্ঠিত। 

 

 আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, ১৯৬৪ সনে কেপিএম স্কুলের প্রথম ব্যাচ শুরু হয়। তবে ১৯৭১ এর ব্যাচ থেকে এপর্যন্ত যত ব্যাচ স্কুল থেকে বেরিছে, সকল ব্যাচের ছাত্রছাত্রীরা মিলন মেলায় অংশ নেয়। প্রায় ২ হাজার ৫শ` প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী চন্দ্রঘোনিয়ান মেলায় অংশ গ্রহণের জন্য রেজিষ্ট্রেশন করে।এছাড়া রেজিষ্ট্রেশন বিহীন প্রায় দেড় হাজার এবং উৎসক আরো এক হাজার দর্শকসহ প্রায় ৫ হাজার লোকের সমাগম ঘটে মিলন মেলায়।    শাররীক অক্ষমতা সত্ত্বেও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বহু বয়োবৃদ্ধ চন্দ্রঘোনিয়ান শুধুমাত্র প্রাণের টানেই মেলায় অংশ গ্রহণ করেছে।আগতদের সাথে ৩০ থেকে ৪০ বছর পর তাদের অনেক বন্ধু-বান্ধব, ব্যাচমেটদের  সাথে দেখা হওয়ায় তারা অনেকে আবেগ- আপ্লুত হয়ে পড়ে।তারা একটিদিন আনন্দ,উল্লাসে কাটায়। মূলত চন্দ্রঘোনার কেপিএম আবাসিক এলাকায় জন্ম নেওয়া দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা আবাল,বৃদ্ধ,বণিতাদের একত্রিত করায় এই মিলন মেলার মূল উদ্দেশ্য।

    --হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ