• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
মহালছড়িতে বৈদ্যুতিক শটসার্কিটে মসজিদ পুড়ে ছাই                    মাটিরাঙ্গার তাইন্দংবাজারে হঅগ্নিকান্ডে ২৫টি পুড়ে ছাই                    মাটিরাঙ্গার তাইন্দংবাজারে হঅগ্নিকান্ডে ২৫টি পুড়ে ছাই                    করোনার প্রভাবে রাঙামাটিতে বিপাকে সংবাদকর্মীরা                    খাগড়াছড়ির এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা’র মাতৃ বিয়োগ                    কর্মহীন মানুষের বাড়ীতে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের ত্রাণ সামগ্রী                    জীবন সংগঠনের পক্ষ থেকে রাঙামাটিতে চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য বিভিন্ন সুরক্ষা সরঞ্জামাদি হস্থান্তর                    পাহাড়ে হাম উপদ্রুত এলাকায় জরুরী মানবিক সহায়তার আহ্বান                    রাঙামাটি জেলা পরিষদের মাস্ক ও হ্যান্ড গ্ল্যাভস্ বিতরণ                    সামাজিক দুরত্ব রক্ষার্থে ত্রান নিয়ে জনগণের দোরগোড়ায় কাপ্তাই ইউএনও                    করোনা ভাইরাস জনিত জুরাছড়িতে কর্মহীনদের বাড়ীতে খাবার পৌছে দিল ইউএনও ও জনপ্রতিনিধিরা                    সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে শহরের প্রধান সড়কে ঔষুধ মিশ্রিত পানি ছিটানো ও গরীদের শুকনো খাবার বিতরণ                    করোনা সচেতনতায় রাঙামাটি শহরের জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টহল অব্যাহত                    কাপ্তাইয়ে অসহায় মানুষের মাঝে কাপ্তাই নৌ বাহিনীর ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ                    বাঘাইছড়িতে গুচ্ছ গ্রাম এলাকায় করোনা ভাইসরাস সন্দেহে ১২টি বাড়ীকে লক ডাউনের ঘোষনা                    রাঙামাটি শহরের বিভিন্ন এলাকায় হ্যান্ড স্যানিটাইজেশন বিতরণ ও বেসিন স্থাপন                    করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে রাঙামাটির শহরে মোবাইল কোর্টের অভিযান অব্যাহত                    করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে রাঙামাটিতে আ’লীগসহ অংগ সংগঠনের সচেতনতামূলক কর্মকান্ড                    করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে বরকল সদরে জীবাণু নাশক স্প্রে                    করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বলাকা ক্লাবের স্প্রে, মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ                    করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে খাগড়াছড়িতে দোকানপাট বন্ধ ও রাস্তাঘাট ফাঁকা                    
 

আলীকদমে ইটভাটায় বনের কাঠ পোড়ানোর অভিযোগ

এস,এম,জুয়েল আলীকদম(বান্দরবান) প্রতিনিধি : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 24 Feb 2018   Saturday

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় তিনটি ইট ভাটায় হাজার হাজার মণ লাকড়ি মজুদ করে ভাটায় পোড়ানো হচ্ছে রাত-দিন। ‘ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩’ এর আইন অমান্য করে তিনটি ইট ভাটা স্থাপন করা হয়েছে ‘সংরক্ষিত বনভুমির ২ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে’। অভিযোগ রয়েছে বন থেকেই কাটা হচ্ছে ইট ভাটার লাকড়ি। এতে বিলীন হয়ে যাচ্ছে পাহাড়ের নানা প্রজাতির বৃক্ষ।


সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার পূর্ব পালংপাড়া ও আমতলী এলাকায় ২টি ভাটায় ড্রামসিট চিমনী দিয়ে মাসাদিককাল থেকে কাঠ দিয়ে পোড়ানো হচ্ছে ইট। অপরদিকে, তারাবুনিয়ায় আরেকটি ইটের ভাটায়ও কয়লার পরিবর্তে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। জ্বালানী ও ইট পরিবহনে ব্যবহার করা হয়েছে গ্রামীণ সড়ক। ভারী যানবাহন চলাচলের ফলে রাস্তা, ব্রিজ ও কালভার্ট ভেঙ্গে জনসাধারণের চলাচলে দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। অতিরিক্ত গাড়ি চলাচলের কারণে গ্রামীণ রাস্তাঘাট ধুলায় একাকার হয়ে সর্বসাধারণের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। ইটের ভাটায় অবৈধভাবে আহরিত লাকড়ির যোগান দিতে গেল বছর থেকে গড়ে উঠেছে নানান সমিতি।


এদিকে, চলতি মাসে উপজেলা পরিবেশ ও বন কমিটির সভায় ব্রিক ফিল গুলোতে কাঠ পোড়ানোর বিরুদ্ধে প্রস্তাব আনা হয়েছে বলে জানা গেছে।


অপরদিকে, এ আইনের ৪ ধারায় উলেক্ষ আছে ‘জেলা প্রশাসকের নিকট হতে লাইসেন্স গ্রহণ ব্যতিরেকে কোন ব্যক্তি ইট প্রস্তুত করতে পারবেন না’। ৫নং ধারায় বলা আছে, ‘কৃষি জমি বা পাহাড় বা টিলা হতে মাটি কেটে বা সংগ্রহ করে ইটের কাঁচা মাল ব্যবহার করা যাবে না’। এছাড়াও ‘স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক নির্মিত উপজেলা বা ইউনিয়ন বা গ্রামীণ সড়ক ব্যবহার করে কোন ব্যক্তি ভারি যানবাহন দ্বারা ইট বা ইটের কাঁচামাল পরিবহন করা যাবে না’ মর্মে আইনে উল্লেখ রয়েছে। আইন অনুযায়ী পার্বত্য জেলায় ইট ভাটা স্থাপনের ক্ষেত্রে, পার্বত্য জেলার পরিবেশ উন্নয়ন কমিটি কর্তৃক নির্ধারিত স্থান ব্যতীত অন্যকোন স্থানে এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে ১ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে এবং ইউনিয়ন সড়ক হতে আধা কিলোমিটারের মধ্যে ইটভাটা স্থাপন করা যাবে না। এ আইনের ৮ ধরার ৩ (খ) উপধারায় উলেক্ষ আছে, ‘বিভাগীয় বনকর্মকর্তার অনুমতি ব্যতীত সরকারি বনাঞ্চলের সীমারেখা হতে ২ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যে ইটভাটা স্থাপন করা যাবে না’।


এছাড়া ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ এর ৬ ধারায় উল্লেখ রয়েছে, ‘কোন ব্যক্তি ইটভাটায় ইট পোড়ানোর কাজে জ্বালানী হিসেবে কোন জ্বালানী কাঠ ব্যবহার করতে পারবেন না’। এ আইন অমান্য করলে ‘অনধিক ৩ বৎসরের কারাদন্ড বা অনধিক ৩ (তিন) লক্ষ টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডিত হইবেন’ মর্মে এ আইনের ১৬ ধারায় বলা হয়েছে।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ নায়িরুজ্জামান বলেন, ইতঃপূর্বে একটি ইট ভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছিল। সরকারি নিয়মনীতি অনুসরণ করে এখানকার ইটভাটা গুলো গড়ে তোলা হয়নি। প্রয়োজনে শীঘ্রই আবারও অভিযান পরিচালনা করা হবে।


লামা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, কাঠ পোড়ানোর বিষয়ে আমি অভিযান পরিচালনা করার জন্য রেঞ্জ কর্মকর্তাদের বলে দিয়েছি। এ ব্যাপারে শীঘ্রই ব্যবস্থা নেয়া হবে।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

আর্কাইভ