• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
বিএনপি-জামাত নির্বাচনের আগে নতুন প্রজম্মকে বিভ্রান্তের অপচেষ্টা চালাচ্ছে                    তিন দিনের টিউবওয়েল বিষয়ক প্রশিক্ষণ সমাপ্ত                    কাপ্তাইয়ের গরীব ও দু:স্হ পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ                    খাগড়াছড়িতে অপহৃতদের মুক্তির দাবীতে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ,৪ গ্রামবাসী উদ্ধার                    রাঙামাটিতে মাদকের বিরুদ্ধে জোরালো অভিযানের দাবীতে মানববন্ধন                    এতিমখানা ও মোনঘর শিশু সদনে জেলা পরিষদের নগদ অর্থ বিতরণ                    সমকাল সম্পাদকের মৃত্যুতে পানছড়ি প্রেস ক্লাবের শোক                    রাঙামাটিতে ভিসিএফের উদ্ভিদ ও প্রাণী জরিপ ফলাফল শেয়ারিং কর্মশালা                    রাঙামাটি রিজিয়নের বিদায়ী ও নতুন কমান্ডার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত                    রাঙামাটিতে জলবায়ু পরিবর্তন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে প্রমিক্ষণ কর্মশালা                    দেশবরেণ্য সাংবাদিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই                    খাগড়াছড়িতে স্মরকলিপি প্রদান শেষে ফেরার পথে ৪ গ্রামবাসীকে অপহরণের অভিযোগ                    জাতীয় শোক দিবস উদযাপনের লক্ষে পানছড়িতে প্রস্তুতি মূলক সভা                    পানছড়িতে ব্র্যাকের ‘‘ইগরা” প্রকল্পের দিনব্যাপি কর্মশালা                    বিলাইছড়িতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন                    পানছড়িতে শিক্ষার্থীকে মাঝে শিক্ষা অনুদানের অর্থ বিতরণ                    কাপ্তাইয়ে বিভিন্ন প্রজাপতির মাছের পোনা বিতরন ও অবমুক্তকরণ                    জাতির জনকের ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বরকলে আলোচনাসভা                    রাঙামাটিতে সংগীত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিল্পীদের পুরস্কার বিতরণ                    খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের ৭৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ক্লাব ও সংগঠনকে অনুদানের চেক হস্তান্তর                    আন্তর্জাতিক যুব দিবসে কাপ্তাইয়ে র‌্যালী ও আলোচনা সভা                    
 

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে রাঙামাটিতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 26 Mar 2018   Monday

মহান স্বাধীনতা  দিবস ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সোমবার রাঙামাটিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা ও সৌজন্য সাক্ষাত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

 

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে পরিষদ সভা কক্ষে আয়োজিত সংবর্ধনা ও সৌজন্য সাক্ষাত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা। অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার আলমগীর কবির, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের উপদেষ্ঠা কমিটির সদস্য শাহজাহান মোল্লা, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য মুক্তিযোদ্ধা হাজী কামাল উদ্দিন, জেলা পরিষদ সদস্য সান্তনা চাকমা, রাঙামাটি  জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার রবার্ট রোনাল্ড পিন্টু, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইকবাল, মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ।  এ সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানন প্রধান ও জেলার মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন।

 

অনুষ্ঠান শেষে জেলা পরিষদ হতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ৬পরিবারের সদস্যদের মাঝে ২হাজার ৫শত টাকা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ৬০জন এবং ২৭জন মৃত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের মাঝে ১হাজার টাকার প্রাইজবন্ড বিতরন করেন অতিথিরা।

 

প্রধান অতিথিে বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নের্তৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন করতে পাকিস্থানীদের উপর ঝাপিয়ে পড়েছিল। এই মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগের জন্যই আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি একথা ভুললে চলবে না। কাজেই তাদের সম্মান আমাদের সকলকে দিতেই হবে। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান জানিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরি অব্যাহত রেখেছেন বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষনে মুক্তিযোদ্ধারা ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ করে স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনে। তাই আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। এই মার্চ মাস বাঙ্গালি জাতির গৌরবের ও ঐতিহাসিক মাস।

 

তিনি বলেন, জাতির পিতাকে হত্যার পর বিএনপি জামাত দেশকে জঙ্গী রাষ্ট্রে পরিনত করতে উঠে পরে লেগেছিল। দূর্নীতি দেশ হিসেবে এ দেশকে বিশ্বে পরিচিত করেছিল তারা। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করে প্রচার করেছিল। কিন্তু জনগন তাদের এই কর্মকান্ডে অতিষ্ঠ হয়ে ২০০৯ সালে আওয়ামীগকে নির্বাচনে জয়ী করে। জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর তার পিতার স্বপ্ন পূরনে অঙ্গিকারবদ্ধ। জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল এ দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত এবং উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিনত করা। তার সুযোগ্য কণ্যা তাই করে চলেছে। দেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়ে বিশ্বে পরিচিত হয়েছে। তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের অবদানের কথা ভুলেনি ভুলবে না। মুক্তিযোদ্ধাদের উন্নয়ন ও কল্যাণে তিনি ৯টি ক্যাটাগরিতে ভাতা প্রদান, সন্তান্তানদের চাকুরী কোটা’সহ বিভিন্নভাবে কল্যান করে যাচ্ছে যা অন্যকোন সরকার করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ উন্নয়ন অব্যাহৃত রাখতে মুক্তিযোদ্ধা’সহ সকলকে পাশে থাকার আহ্বান জানান তিনি।

 

তিনি  সরকারী নীতি অনুসরন করে জেলা পরিষদ হতে নিয়োগের ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের কোন বৈষম্য হবে না বলে আশা ব্যক্ত করেন।

 

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ বলেন, দেশের সূর্য সন্তানদের জন্য আমার দরজা সবসময় খোলা থাকবে। যে কোন সমস্যা নিয়ে আমার কাছে আসলে তা নিরসন করার চেষ্ঠা আমি করে যাবো। আমরা আজ কর্মকর্তা হওয়ার পেছনে তাদেরই অবদান। তিনি বলেন, উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স করার বিষয়ে সহযোগিতা প্রদানের প্রতিশ্রুতী দেন। তিনি আরো বরেন, এ জেলার সকল সম্প্রদায়ের মাঝে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট রাখতে আমি সেভাবে কাজ করে যাবো।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

 

 

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ