• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
করোনা প্রতিরোধে দীঘিনালায় বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সেনাবাহিনীর প্রচারণা                    রাঙামাটিতে চম্পক নগর যুব সমাজের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ                    খাগড়াছড়িতে ১’শ ৩০ পরিবারকে লক্ষ্মী চাকমা’র ত্রাণ সহায়তা                    রাঙামাটিতে অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ তুলে দিলেন দীপংকর তালুকদার এমপি                    দীঘিনালায় অসহায় মানুষের পাশে ইউপিডিএফ গণতন্ত্র                    কাপ্তাইয়ে যুবলীগ নেতা খুনের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দীপংকর তালুকদার এমপি                    করোনায় প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে রাঙামাটিতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে                    মহালছড়িতে কর্মহীন মানুষকে মনাটেক যাদুগানালা মৎস্য সমিতির খাদ্য সামগ্রী বিতণ                    বিলাইছড়িতে দুই শতাধিক লোকজনদের অর্থ সহায়তা প্রদান করেছে জেলা পরিষদ                    রাঙামাটিতে নতুন ৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে, ছাড়পত্র পেয়েছেন ১০২ জন                    বন্দুকভাঙ্গায় দুশ দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ                    করোনায় কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন বলাকা ক্লাব                    তিন পার্বত্য জেলায় পাহাড়ীদের প্রধান সামাজিক উৎসব পালনে স্থগিতের আদেশ                    লামায় তামাক কোম্পানী তামাক ক্রয় না করায় চাষীদের ঘরে ঘরে কান্না চলছে                    কাপ্তাইয়ে ২ শতাধিক পরিবারের মাঝে জেলা পরিষদের ত্রাণ বিতরণ                    খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির উদ্বোধন                    কাপ্তাইয়ের দুর্বৃত্তদের গুলিতে ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সভাপতি নিহত                    দীঘিনালায় কর্মহীন ও গরীবদের পাশে দাড়ালেন বাসন্তী চাকমা এমপি                    বরকলে কর্মহীন পরিবারের মাঝে জেলা পরিষদের ত্রাণ বিতরণ                    রাঙামাটিতে ন্যাযমূল্যে টিসিবির নিত্যপন্য সামগ্রী বিক্রি শুরু                    রাঙামাটিতে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৯২ জন                    
 

বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহবুবুর রহমানের নাগরিক শোক সভায় বক্তারা
মাহবুবুর রহমানের স্বপ্ন অসম্প্রদায়িক পার্বত্য চট্টগ্রাম গড়তে সবাইকে কাজ করতে হবে

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 02 Sep 2016   Friday

মাহবুবুর রহমান ছিলেন একজন সৎ নিষ্ঠাবান ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রকৃতির মানুষ। তিনি সমাজে অসাম্প্রদায়িক চেতানার প্রদীপ জ্বালাতে জাতি ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে কাজ করে গেছেন। তার এই স্মরণসভায় সকলের এই অঙ্গিকার হয়ে উঠুক দীর্ঘদিনের যে লালিত স্বপ্ন একটি অসাম্প্রদায়িক পার্বত্য চট্টগ্রাম গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাওয়া।


শুক্রবার রাঙামাটি পাবলিক কলেজ মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক মাহবুবুর রহমানের নাগরিক শোক সভায় বক্তারা এ কথা বলেন।


মাহবুবুর রহমান স্মরণে নাগরিক শোক সভার প্রস্তুতি পরিষদের আয়োজনে স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, জেলা প্রশাসক মোঃ সামসুল আরেফিন, পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ শহিদুল্লাহ, প্রাক্তন উপমন্ত্রী মনি স্বপন দেওয়ান, স্থানীয় সরকার পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান গৌতম দেওয়ান,পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান কাজী নজরুল ইসলাম, তবলছড়ি বাজার কল্যাণ সমিতির সভাপতি জহির আহম্মদ সওদাগর, জাতীয় পাটি রাঙামাটি সভাপতি হারুন মাতব্বর, কমিউনিষ্ট পার্টি রাঙামাটির সভাপতি কমরেড সমীর কান্তি দে, জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মুছা মাতব্বর, রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিটজ এর সহ-সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ, রোভার স্কাউটেসের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার, রাঙামাটি প্রেসক্লাব সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, প্রয়াত মাহবুবুর রহমানের বড় ছেলে মেহেদী আল মাহবুব প্রমুখ।

 

শোক সভায় শোকপত্র পাঠ করেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অঞ্জুলিকা খীসা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও মাহবুবুর রহমান স্মরণে নাগরিক শোকসভা প্রস্তুতি পরিষদের সদস্য সচিব প্রবীন সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে।


অনুষ্ঠানে সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বাংলাদেশ বেতারের ঘোষিকা শিখা ত্রিপুরা ও সাংস্কৃতিক কর্মী সৈকত রঞ্জন বাবু।

 

১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রয়াত মাহবুবুর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করে বক্তারা বলেন, মাহবুবুর রহমান ছিলেন একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা। তিনি যুদ্ধ করেও তার কৃতিত্বস্বরূপ মুক্তিযোদ্ধার সনদ গ্রহণ করেননি। একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা কখনোই তার কৃতিত্বের কথা কাগজে কলমে দাখিল করে বলেন না।


বক্তারা আরো বলেন, মাহবুবুর রহমান ছিলেন একজন অতি সাধারণ মানুষ। অস্ত্র কাঁধে নিয়ে যুদ্ধ করেও তিনি তার সনদ গ্রহণ করেননি। তার সনদ গ্রহণ করার জন্য আমরা তাকে অনেকবার বলেছি। তিনি প্রতিউত্তরে আমাদেরকে বলেছেন আমি যুদ্ধ করেছি দেশের জন্য সনদ পত্র গ্রহণ করে সাহায্য গ্রহণের জন্য নয়।


বক্তারা বলেন,মাহবুবুর রহমান ছিলেন পার্বত্য রাঙামাটির জন্য একজন অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষ। তিনি সমাজের প্রতিটি সেক্টরে তার হাতের ছোঁয়া রেখে গেছে। তার হাত ধরে পার্বত্য রাঙামাটিতে অনেক উন্নয়ন মুখী সংগঠন সৃষ্টি হয়েছে। অনেক সংগঠন তার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে সহযোগিতা করে গেছেন। তার এই অবদানের কথা পার্বত্যবাসী চিরদিন স্মরণ রাখবে। তিনি পরবাসী হলেও পার্বত্যবাসীর হৃদয়ে বেঁচে থাকবে তার কর্মকান্ডের মাধ্যমে।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ